বর্তমানে পদার্থের কয়টা অবস্থা? - ScienceBee প্রশ্নোত্তর

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রশ্নোত্তর দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম! প্রশ্ন-উত্তর দিয়ে জিতে নিন পুরস্কার, বিস্তারিত এখানে দেখুন।

+1 টি ভোট
109 বার দেখা হয়েছে
"পদার্থবিজ্ঞান" বিভাগে করেছেন (15,060 পয়েন্ট)

4 উত্তর

+1 টি ভোট
করেছেন (7,610 পয়েন্ট)

There are four states of matter common in everyday life — gases, liquids, solids, and plasmas. However, there is also a fifth state of matter — Bose-Einstein condensates (BECs), which scientists first created in the lab 25 years ago.

Source: space.com

0 টি ভোট
করেছেন (15,060 পয়েন্ট)
আমরা সাধারণত জানি পদার্থ তিনটি রূপে অবস্থান করে। কঠিন, তরল ও বায়বীয়। কিন্তু মহাবিশ্বে পদার্থ আরও জটিল রূপেও অবস্থান করে। বিজ্ঞানীরা বলেন, পদার্থের একটি চতুর্থ রূপ রয়েছে, এর নাম প্লাজমা। পৃথিবীতে অবশ্য প্লাজমা খুব স্বাভাবিক রূপে অবস্থান করে না। কিন্তু মহাবিশ্বে এর অবস্থান বেশি। নক্ষত্রগুলো প্লাজমা দিয়ে গঠিত। প্লাজমা আসলে গ্যাসের মতো। এর নির্দিষ্ট কোনো আকার নেই। পার্থক্য হলো গ্যাস বৈদ্যুতিকভাবে নিষ্ক্রিয়, কিন্তু প্লাজমায় রয়েছে আয়নিত গ্যাস। অতি উচ্চ তাপে কিংবা শক্তিশালী বিদ্যুত্চুম্বকীয় ক্ষেত্রে গ্যাস আয়নিত হয়। তখন তাতে ঋণাত্মক চার্জে চার্জিত ইলেকট্রন ও ধনাত্মক আয়ন তৈরি হয়। এই চার্জের জন্যই প্লাজমা গ্যাসের চেয়ে আলাদা।
0 টি ভোট
করেছেন (33,200 পয়েন্ট)

পদার্থের ৪টি অবস্থা

  • কঠিন
  • তরল
  • বায়বীয়
  • প্লাজমা।
0 টি ভোট
করেছেন (4,830 পয়েন্ট)

আমাদের পরিচিত তিনটি পদার্থের অবস্থা হলো কঠিন, তরল , গ্যাসীয়। অনেকেই প্লাজমাকে চতুর্থ অবস্থা হিসেবে জানি। কিন্তু আমরা যদি ভেবে থাকি পদার্থের শুধুমাত্র এই চারটি অবস্থাই হওয়া সম্ভব তাহলে সেটা ভুল ভাবছি। পদার্থের অবস্থা কতগুলো হতে পারে এটা আসলে নির্দিষ্ট করে বলা সম্ভব না, কারণ বিভিন্ন পরিস্থিতিতে পদার্থের অবস্থা ভিন্ন হতে পারে। যেমন-
প্লাজমাঃ
প্লাজমা অবস্থায় কোনো পদার্থের কণাগুলো গ্যাসের চেয়েও বিচ্ছিন্ন থাকে। এই অবস্থায় বিভিন্ন আয়ন , ইলেকট্রন, প্রোটন ইত্যাদি বিচ্ছিন্ন অবস্থায় থাকে। অতি উচ্চ তাপমাত্রায় এই অবস্থা পাওয়া যায়, যেমন সূর্য, বজ্রপাত ইত্যাদি।
সুপারফ্লুইডঃ
এটি অনেকটা তরলের মতোই কিন্তু তরলের সাথে এর পার্থক্য হলো এটি কোনোপ্রকার ঘর্ষণ ছাড়া প্রবাহিত হতে পারে, এই অবস্থায় সান্দ্রতা শূন্য। এটি প্রায় পরম শূন্যের কাছাকাছি তাপমাত্রায় ঘটে।
বোস-আইনস্টাইন কনডেনসেটঃ
 অতি নিম্ন তাপমাত্রায় (প্রায় পরম শূন্যের কাছাকাছি) পদার্থের কণাগুলোর গতিশক্তি প্রায় শূন্য হয়ে যায়। যেহেতু গতিশক্তি স্থানান্তরিত হয়না, তাই কণাগুলো আলাদাভাবে না থেকে একত্র হতে শুরু করে। একত্র হয়ে যে বিশাল কণা তৈরি করে সেটিকে বলা হয় 'সুপার এটম' । ১৯৯৫ সালে পরীক্ষাগারে এই অবস্থার অস্তিত্ব পাওয়া যায়।
ফার্মিওনিক কনডেনসেটঃ
এর সাথে বোস-আইনস্টাইন অবস্থার মিল রয়েছে । কিন্তু পার্থক্য হলো এক্ষেত্রে ফার্মিয়ন কণাও উপস্থিত থাকে যেটি সবগুলো কণাকে একত্রিত হতে বাঁধা দেয়। এই অবস্থায় কণাগুলো জোড়ায় জোড়ায় থাকে এবং এই জোড়াগুলো অন্য আরেকটি জোড়ার সাথে সংযুক্ত অবস্থায় থাকে। 

এরকম আরও বিভিন্ন অবস্থা হতে পারে।

সোর্সঃ
নাসা, সায়েন্স নোটস

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

+2 টি ভোট
2 টি উত্তর 131 বার দেখা হয়েছে
26 জানুয়ারি "মনোবিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন R Atiqur (44,030 পয়েন্ট)
+2 টি ভোট
2 টি উত্তর 99 বার দেখা হয়েছে
+2 টি ভোট
1 উত্তর 57 বার দেখা হয়েছে
+3 টি ভোট
1 উত্তর 98 বার দেখা হয়েছে
27 ফেব্রুয়ারি 2021 "পদার্থবিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন হুজায়ফা আহমদ আদি (134,580 পয়েন্ট)

9,813 টি প্রশ্ন

16,299 টি উত্তর

4,599 টি মন্তব্য

145,812 জন সদস্য

78 জন অনলাইনে রয়েছে
11 জন সদস্য এবং 67 জন গেস্ট অনলাইনে
  1. ইমরান হোসেন

    260 পয়েন্ট

  2. Nadia

    240 পয়েন্ট

  3. alamin162455

    140 পয়েন্ট

  4. NasimAhmed

    120 পয়েন্ট

  5. Abid Hasan

    120 পয়েন্ট

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্মুক্ত বিজ্ঞান প্রশ্নোত্তর সাইট সায়েন্স বী QnA তে আপনাকে স্বাগতম। এখানে যে কেউ প্রশ্ন, উত্তর দিতে পারে। উত্তর গ্রহণের ক্ষেত্রে অবশ্যই একাধিক সোর্স যাচাই করে নিবেন। অনেকগুলো, প্রায় ২০০+ এর উপর অনুত্তরিত প্রশ্ন থাকায় নতুন প্রশ্ন না করার এবং অনুত্তরিত প্রশ্ন গুলোর উত্তর দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। প্রতিটি উত্তরের জন্য ৪০ পয়েন্ট, যে সবচেয়ে বেশি উত্তর দিবে সে ২০০ পয়েন্ট বোনাস পাবে।


Science-bee-qna

সর্বাপেক্ষা জনপ্রিয় ট্যাগসমূহ

মানুষ পানি ঘুম এইচএসসি-উদ্ভিদবিজ্ঞান এইচএসসি-প্রাণীবিজ্ঞান - পৃথিবী জীববিজ্ঞান চোখ রোগ পদার্থ শরীর রক্ত আলো কী মোবাইল ক্ষতি চুল চিকিৎসা এইচএসসি-আইসিটি মহাকাশ মাথা বৈজ্ঞানিক পদার্থবিজ্ঞান সূর্য স্বাস্থ্য পার্থক্য রাসায়নিক প্রযুক্তি প্রাণী খাওয়া গণিত বিজ্ঞান কেন #ask #biology ডিম শীতকাল গরম কারণ #জানতে বৃষ্টি রং চাঁদ উপকারিতা আগুন বিদ্যুৎ কাজ লাল রাত সাদা সাপ গাছ শক্তি #science দুধ উপায় হাত মনোবিজ্ঞান ব্যাথা খাবার ভয় আবিষ্কার মশা মস্তিষ্ক শব্দ মাছ ঠাণ্ডা গ্রহ কি উদ্ভিদ কালো স্বপ্ন পা বৈশিষ্ট্য সমস্যা বাতাস রঙ বিস্তারিত পাখি হলুদ মন রসায়ন মেয়ে গ্যাস ভাইরাস বিড়াল ব্যথা আম পাতা আকাশ তাপমাত্রা ঔষধ নাক মৃত্যু চার্জ দাঁত কান্না হরমোন বাচ্চা
...