ইনসুলিন (insulin) কি? - ScienceBee প্রশ্নোত্তর

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রশ্নোত্তর দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম! প্রশ্ন-উত্তর দিয়ে জিতে নিন পুরস্কার, বিস্তারিত এখানে দেখুন।

+60 টি ভোট
125,408 বার দেখা হয়েছে
করেছেন (32,140 পয়েন্ট)

28 উত্তর

+10 টি ভোট
করেছেন (32,140 পয়েন্ট)
 
সর্বোত্তম উত্তর

ইনসুলিন হলো অগ্ন্যাশয়ের প্রধান হরমোন,এক ধরণের পলিপ্যাপটাইড, যা গ্লুকোজকে রক্ত থেকে কোষের মধ্যে প্রবেশ করা নিয়ন্ত্রণ করে। ইনসুলিন অগ্ন্যাশয়ের ইনসুলিন নিঃসরণকারী কোষগুলো (আইল্যেটস অব ল্যাঙ্গারহেন্স-এর বিটা কোষ) থেকে নিঃসৃত হয়।

ইনসুলিন কিভাবে কাজ করে এবং কিভাবে তৈরি হয়..?

রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বেড়ে গেলে তা কমানো জরুরি হয়ে পড়ে। একজন সুস্থ মানুষের দেহে এ কাজটি করে অগ্ন্যাশয় থেকে নিঃসৃত এক ধরনের প্রাণরস বা হরমোন, এর নাম ইনসুলিন। কোষের গ্লুকোজ গ্রহণে ইনসুলিন এক বিশেষ ভূমিকা পালন করে। ইনসুলিনকে কোষের সঙ্গে সংযুক্ত করার জন্য প্রতিটি কোষের ঝিল্লিতে রয়েছে ইনসুলিন রিসেপটর (ইনসুলিন গ্রাহক)। রক্ত থেকে কোষের ভেতরে গ্লুকোজ প্রবেশের ক্ষেত্রে ইনসুলিন এবং ইনসুলিন রিসেপটর দুটিরই অপরিহার্য ভূমিকা রয়েছে। ইনসুলিন এসে ইনসুলিন রিসেপটরকে সক্রিয় করলে কোষ একটি বার্তা পায়। তখন কোষের গ্লুকোজ ট্রান্সপোর্টারগুলো কোষঝিল্লির দিকে যায় এবং এদের মাধ্যমে গ্লুকোজ কোষের ভেতরে প্রবেশ করে। এই সংকেত না পেলে কোষের ভেতর গ্লুকোজ প্রবেশ করার প্রক্রিয়াটি শুরু হয় না। এক্ষেত্রে মূল সংকেতটিই দিয়ে থাকে ইনসুলিন। অর্থাৎ ইনসুলিন কোষের রিসেপটরে বিশেষ সংকেত প্রদান করলে রক্ত থেকে গ্লুকোজ কোষে প্রবেশ করার প্রক্রিয়া শুরু হয় এবং একপর্যায়ে তা শেষ হয়।
কোষ যখন রক্তের সুগার নিতে বিলম্ব করে তখন রক্তে সুগারের মাত্রা বেড়ে যায়। যাদের ডায়াবেটিসের সমস্যা আছে, তাদের শরীরের কোষগুলো স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় রক্ত থেকে গ্লুকোজ নিতে পারে না। ফলে তাদের রক্তে গ্লুুকোজের মাত্রা বেড়ে যায়। নানা কারণে ডায়াবেটিক রোগীদের রক্তে গ্লুকোজের এই অস্বাভাবিক উপস্থিতি তৈরি হতে পারে। যেমন- কারও কারও শরীরে হয়তো প্রয়োজনীয় ইনসুলিন তৈরি হয় না। আবার কারও ক্ষেত্রে শরীরে তৈরি হওয়া ইনসুলিন কোষঝিল্লিতে প্রয়োজনীয় গ্রাহকের অভাবে কাজ করতে পারে না।

আগে বিভিন্ন প্রাণীদেহ থেকে সংগৃহীত ইনসুলিন মানবদেহে ব্যবহƒত হতো। তা ছিল ব্যয়বহুল। অনেক রোগীর ক্ষেত্রে তা ব্যবহারে নানা সমস্যা হতো। বর্তমানে জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এবং বায়োটেকনোলজি ব্যবহার করে ইনসুলিন তৈরি হচ্ছে। এর মাধ্যমে প্রচুর পরিমাণে ইনসুলিন তৈরি করা যায়, যার গুণাগুণ মানুষের দেহে উৎপন্ন ইনসুলিনের মতোই। এ প্রক্রিয়ায় মানুষের ডিএনএ থেকে ইনসুলিন জিনটিকে সংগ্রহ করে ব্যাকটেরিয়া এবং ঈস্টের মধ্যে প্রবেশ করিয়ে সেখানে ইনসুলিন প্রস্তুত করা হচ্ছে।
আমরা জানি, ব্যাকটেরিয়া মাত্র ২০ মিনিটে বংশ বৃদ্ধি করে। অর্থাৎ এ সময় পর একটি ব্যাকটেরিয়া পূর্ণাঙ্গ দুটি ব্যাকটেরিয়ায় পরিণত হয়। দুই থেকে চারটি হয়। এভাবে এটি দ্রুত বংশ বৃদ্ধি করে। এভাবে লাখ লাখ কোষ অল্প সময়ের ব্যবধানে তৈরি করা যায় এবং এসব ব্যাকটেরিয়া হিউম্যান ইনসুলিন তৈরির কাজে ব্যবহার করা যায়। ল্যাবরেটরিতে জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং করে ব্যাকটেরিয়ার ভেতর মানুষের ইনসুলিন জিন ঢোকানো হয় বলে ওই বিশেষ ব্যাকটেরিয়াগুলো হিউম্যান ইনসুলিন তৈরি করে থাকে। ওই ইনসুলিন পরিশোধন করেই বোতলজাত করে ব্যবহারের উপযোগী করা হয়।

Answered by: Nazmus Sakib

করেছেন
+1
<a href="https://levitratabs.com/">levitra purchase canada</a> <a href="https://lopressor365.com/">lopressor xl</a> <a href="https://wellbutrinbup.com/">wellbutrin online australia</a> <a href="https://dapoxetinesale.com/">super avana 160 mg</a> <a href="https://erythromycina.com/">where to buy erythromycin in singapore</a>
করেছেন
+1
<a href="http://viagraedd.com/">buying sildenafil in mexico</a> <a href="http://baclofengen.com/">baclofen over the counter canada</a> <a href="http://buytrental.com/">trental 400 tablet</a> <a href="http://buytadalafilcialis.com/">buy tadalafil canada</a> <a href="http://wellbutrinbup.com/">generic wellbutrin sr</a> <a href="http://effexorx.com/">effexor 37 mg</a> <a href="http://cialishow.com/">cialis 20mg tablets uk</a>
করেছেন
+1
করেছেন
+1
<a href="http://sumycin24.com/">tetracycline cream over the counter</a> <a href="http://erythromycina.com/">buy erythromycin cream</a> <a href="http://inderalpill.com/">where can i get propranolol</a> <a href="http://buytadalafilcialis.com/">cialis 20 mg</a> <a href="http://viagranat.com/">viagra canada online</a> <a href="http://cialisgn.com/">cialis generic from india</a> <a href="http://baclofengen.com/">baclofen 024</a>
করেছেন
+1
+6 টি ভোট
করেছেন (54,270 পয়েন্ট)
ইনসুলিন (Insulin) হল অগ্ন্যাশয়ে তৈরি একটি হরমোন যা দেহের পরিপাকতন্ত্রের হজম প্রক্রিয়াকে সহায়তা করে। ইনসুলিন শরীরকে শক্তি উৎপাদনের জন্য গ্লুকোজ (চিনি) ব্যবহার করতে সাহায্য করে। তবে যখন দেহে ডায়াবেটিস দেখা দেয়, তখন কখনও কখনও অগ্ন্যাশয় গ্রন্থি থেকে কোনও ইনসুলিন তৈরি হয় না বা যথেষ্ট পরিমাণে তৈরি হয় না।

এভাবে যদি বলি, এ গ্রন্থি যে পরিমাণ ইনসুলিন (Insulin) তৈরি করে তা দেহের জন্য সঠিকভাবে কাজ করে না। আর এ কারণেই ডায়াবেটিসে আক্রান্ত কিছু লোক কৃত্তিমভাবে তৈরি ইনসুলিনের উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়ে। যার অর্থ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মানুষদের, ইনসুলিনকে ওষুধ হিসাবে গ্রহণ করার প্রয়োজন হয়। পরিমিত মাত্রায় ইনসুলিন গ্রহণ রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে সহায়তা করে। আর এভাবেই ইনসুলিন গ্রহণের মাধ্যমে দেহ সুস্থ থাকে।

সময়ের শুরু থেকেই, আমরা আমাদের জীবনকে সহজ করার জন্য বিভিন্ন উপায় অনুসন্ধান করেছি। আধুনিক যুগ আমাদের কিছু আশ্চর্যজনক প্রযুক্তিগত অগ্রগতি উপহার দিয়েছে। অনেকের কাছে এই জিনিসগুলি ব্যতীত বেঁচে থাকার কোন মানে হয় না।

তবে, যদি আপনার দেহে ডায়াবেটিস রোগটি বাসা বেঁধে থাকে তবে সন্দেহ নেই যে, বিংশ শতাব্দীর ইনসুলিন (Insulin) আবিষ্কারের বিষয়টি আপনার কাছে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব বহন করবে।
+4 টি ভোট
করেছেন (54,270 পয়েন্ট)
ইনসুলিন(ইংরেজি: Insulin), হলো অগ্ন্যাশয়ের প্রধান হরমোন,এক ধরনের পলিপ্যাপটাইড, যা গ্লুকোজকে রক্ত থেকে কোষের মধ্যে প্রবেশ করা নিয়ন্ত্রণ করে। ইনসুলিন অগ্ন্যাশয়ের ইনসুলিন নিঃসরণকারী কোষগুলো (আইল্যেটস অব ল্যাঙ্গারহেন্স-এর বিটা কোষ) থেকে নিঃসৃত হয়। মূলত ডায়েবেটিস মেলাইটাস এ ইনসুলিন ব্যবহৃত হয়ে থাকে। ইনসুলিন খুব পুরানো প্রোটিন যা কয়েক বিলিয়ন বছর আগে উদ্ভাবিত হয়েছে।

ইনসুলিন ৫১টি অ্যামিনাে অ্যাসিড নিয়ে গঠিত ক্ষুদ্রাকার সরল প্রােটিন । দুটি পলিপেপটাই চেইন ( ২১টি অ্যামাইনাে অ্যাসিড নিয়ে গঠিত চেইন – A এবং ৩০টি অ্যামিনাে অ্যাসিড নিয়ে গঠিত চেইন – B ) দুটি ডাইসালফাইড বন্ডের মাধ্যমে সংযুক্ত হয়ে একটি ইনসুলিন অণু গঠন করে । এর রাসায়নিক সংকেত হলাে : C254H377O75S6 আণবিক ভর ৫৭৩৪ ।বর্তমানে মানুষের ইনসুলিন উৎপাদনকারী জিন E . coli তে স্থানান্তর করে ব্যাপক হারে ইনসুলিন উৎপাদন করা হচ্ছে । একটি ব্যাক্টেরিয়াম কোষে প্রায় দশ লক্ষ অণু ইনসুলিন তৈরি হয়ে থাকে । ইনসুলিন কৃত্রিমভাবে উৎপাদনের কারণে বর্তমান পৃথিবীর অধিকাংশ জৈবিক সমস্যা সমাধান সম্ভব হয়েছে। বর্তমানে বিজ্ঞানীরা এই বিষয়ে আরো ব্যাপক গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছে ।
+2 টি ভোট
করেছেন (750 পয়েন্ট)
ইনসুলিন একটি হরমোন যা রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা (এক ধরনের চিনি) কমায়। এটি অগ্ন্যাশয়ের বিটা কোষ দ্বারা তৈরি হয় এবং যখন গ্লুকোজের মাত্রা বেড়ে যায়, যেমন খাওয়ার পরে রক্তে নির্গত হয়। ইনসুলিন গ্লুকোজকে শরীরের কোষে প্রবেশ করতে সাহায্য করে, যেখানে এটি শক্তির জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে বা ভবিষ্যতে ব্যবহারের জন্য সংরক্ষণ করা যেতে পারে।
+2 টি ভোট
করেছেন (1,360 পয়েন্ট)
ইনসুলিন অগ্ন্যাশয় দ্বারা উত্পাদিত একটি হরমোন যা শরীরের রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। রক্তে শর্করার মাত্রা বৃদ্ধির প্রতিক্রিয়া হিসাবে এটি রক্ত ​​প্রবাহে মুক্তি পায় এবং এটি রক্ত ​​প্রবাহ থেকে গ্লুকোজ গ্রহণ করতে এবং যকৃত, পেশী এবং চর্বি কোষগুলিতে সংরক্ষণ করতে কোষগুলিকে উদ্দীপিত করে রক্তে শর্করাকে হ্রাস করতে সহায়তা করে। ইনসুলিন লিভারে গ্লুকোজের উৎপাদনকে বাধা দিতেও সাহায্য করে, যা রক্তে শর্করার মাত্রা খুব বেশি হওয়া থেকে রোধ করতে সাহায্য করতে পারে।

ইনসুলিনের ঘাটতি বা প্রতিরোধের ফলে টাইপ 1 এবং টাইপ 2 ডায়াবেটিস সহ বিভিন্ন ধরণের স্বাস্থ্য সমস্যা হতে পারে। টাইপ 1 ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ব্যক্তিরা পর্যাপ্ত ইনসুলিন তৈরি করেন না এবং তাদের রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে ইনসুলিন ইনজেকশন নিতে হবে বা ইনসুলিন পাম্প ব্যবহার করতে হবে। টাইপ 2 ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ব্যক্তিরা পর্যাপ্ত ইনসুলিন তৈরি করতে পারে না বা এটি কার্যকরভাবে ব্যবহার করতে পারে না এবং তাদের রক্তে শর্করার মাত্রা পরিচালনা করার জন্য তাদের ইনসুলিন বা অন্যান্য ওষুধ সেবন করতে হতে পারে।

ইনসুলিন অন্যান্য চিকিৎসা অবস্থার চিকিৎসায়ও ব্যবহৃত হয়, যেমন হাইপারইনসুলিনিজম (অতিরিক্ত ইনসুলিন উৎপাদন) এবং হাইপারঅ্যান্ড্রোজেনিজম (পুরুষ হরমোনের অতিরিক্ত উৎপাদন)। এটি একটি প্রেসক্রিপশন ওষুধ হিসাবে উপলব্ধ এবং এটি অবশ্যই একজন স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারীর নির্দেশনায় ব্যবহার করা উচিত।
+1 টি ভোট
করেছেন (1,060 পয়েন্ট)
ইনসুলিন হল একটি পেপটাইড হরমোন যা অগ্ন্যাশয়ের বিটা কোষ দ্বারা উৎপাদিত হয়।  এটি শরীরের প্রধান অ্যানাবলিক হরমোন বলে মনে করা হয়।  এটি লিভার, চর্বি এবং কঙ্কালের পেশী কোষে রক্ত ​​থেকে গ্লুকোজ শোষণের প্রচার করে কার্বোহাইড্রেট, চর্বি এবং প্রোটিনের বিপাক নিয়ন্ত্রণ করে।
+1 টি ভোট
করেছেন (28,740 পয়েন্ট)
ডায়াবেটিস রোগে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বেড়ে যায়। যখন খাবার নিয়ন্ত্রণ বা ওষুধের মাধ্যমে এই মাত্রাকে নিয়ন্ত্রণে আনা যায় না তখন ইনজেকশনের মাধ্যমে ইনসুলিন দিতে হয়। ইনসুলিন একটি প্রোটিনধর্মী হরমোন। ইনসুলিন দেহের প্রয়োজন ছাড়া গ্লুকোজের মাত্রা কমিয়ে দেহকে সঠিক পরিমাণের গ্লুকোজ সরবরাহে সাহায্য করে। গুরুত্বপূর্ণ এই হরমোনটি তৈরি হয় দেহের প্যানক্রিয়াস নামের অঙ্গে। বাংলায় প্যানক্রিয়াসকে বলে অগ্ন্যাশয়।
0 টি ভোট
করেছেন (260 পয়েন্ট)

ইনসুলিন (Insulin) হল অগ্ন্যাশয়ে তৈরি একটি হরমোন যা দেহের পরিপাকতন্ত্রের হজম প্রক্রিয়াকে সহায়তা করে 

For more visit : https://www.bigganerba.com/

0 টি ভোট
করেছেন (640 পয়েন্ট)
ইনসুলিন হচ্ছে এক ধরনের হরমোন যা অগ্ন্যাশয় থেকে নির্গত হয়।এই হরমোনের অভাবে ডায়াবেটিস রোগ হয়।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

+9 টি ভোট
3 টি উত্তর 443 বার দেখা হয়েছে
+3 টি ভোট
1 উত্তর 117 বার দেখা হয়েছে
31 ডিসেম্বর 2021 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Ismot Rahman (28,740 পয়েন্ট)
+1 টি ভোট
4 টি উত্তর 384 বার দেখা হয়েছে
05 মার্চ 2021 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন শাহরিয়ার (610 পয়েন্ট)
+3 টি ভোট
7 টি উত্তর 467 বার দেখা হয়েছে
04 জানুয়ারি 2022 "জীববিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md. Arafat Hasan (16,190 পয়েন্ট)
+1 টি ভোট
1 উত্তর 141 বার দেখা হয়েছে

10,719 টি প্রশ্ন

18,361 টি উত্তর

4,729 টি মন্তব্য

239,675 জন সদস্য

87 জন অনলাইনে রয়েছে
0 জন সদস্য এবং 87 জন গেস্ট অনলাইনে
  1. Ayon Ratan Agni

    390 পয়েন্ট

  2. Vuter Baccha

    150 পয়েন্ট

  3. almoyaj_k

    130 পয়েন্ট

  4. Mehedi_Bknowledge

    110 পয়েন্ট

  5. Monojit Das

    110 পয়েন্ট

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্মুক্ত বিজ্ঞান প্রশ্নোত্তর সাইট সায়েন্স বী QnA তে আপনাকে স্বাগতম। এখানে যে কেউ প্রশ্ন, উত্তর দিতে পারে। উত্তর গ্রহণের ক্ষেত্রে অবশ্যই একাধিক সোর্স যাচাই করে নিবেন। অনেকগুলো, প্রায় ২০০+ এর উপর অনুত্তরিত প্রশ্ন থাকায় নতুন প্রশ্ন না করার এবং অনুত্তরিত প্রশ্ন গুলোর উত্তর দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। প্রতিটি উত্তরের জন্য ৪০ পয়েন্ট, যে সবচেয়ে বেশি উত্তর দিবে সে ২০০ পয়েন্ট বোনাস পাবে।


Science-bee-qna

সর্বাপেক্ষা জনপ্রিয় ট্যাগসমূহ

মানুষ পানি ঘুম পদার্থ - জীববিজ্ঞান এইচএসসি-উদ্ভিদবিজ্ঞান এইচএসসি-প্রাণীবিজ্ঞান পৃথিবী চোখ রোগ রাসায়নিক শরীর রক্ত আলো মোবাইল ক্ষতি চুল কী #ask চিকিৎসা পদার্থবিজ্ঞান সূর্য প্রযুক্তি প্রাণী স্বাস্থ্য বৈজ্ঞানিক মাথা গণিত মহাকাশ পার্থক্য এইচএসসি-আইসিটি #science বিজ্ঞান #biology খাওয়া শীতকাল গরম কেন #জানতে ডিম চাঁদ বৃষ্টি কারণ কাজ বিদ্যুৎ রাত রং উপকারিতা শক্তি লাল আগুন সাপ মনোবিজ্ঞান গাছ খাবার সাদা আবিষ্কার দুধ উপায় হাত মশা মাছ মস্তিষ্ক শব্দ ঠাণ্ডা ব্যাথা ভয় বাতাস গ্রহ স্বপ্ন রসায়ন তাপমাত্রা উদ্ভিদ কালো কি বিস্তারিত রঙ পা পাখি গ্যাস মন সমস্যা মেয়ে বৈশিষ্ট্য হলুদ বাচ্চা সময় ব্যথা মৃত্যু চার্জ অক্সিজেন ভাইরাস আকাশ গতি দাঁত আম বিড়াল কান্না নাক
...