কী হবে যদি চাঁদ পৃথিবীর উপর ভেঙে পড়ে? - ScienceBee প্রশ্নোত্তর

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রশ্নোত্তর দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম! প্রশ্ন-উত্তর দিয়ে জিতে নিন পুরস্কার, বিস্তারিত এখানে দেখুন।

0 টি ভোট
12 বার দেখা হয়েছে
"পরিবেশ" বিভাগে করেছেন (6,510 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (6,510 পয়েন্ট)

আমরা জানি, চাঁদ আমাদের একমাত্র প্রাকৃতিক উপগ্রহ। চাঁদ পৃথিবীকে কেন্দ্র করে ঘোরে। কিন্তু কেমন হবে যদি এই চাঁদ-ই আমাদের পৃথিবীর উপর ভেঙে পড়ে? চলুন জেনে নেওয়া যাক।

যদি চাঁদ ক্রমান্বয়ে পৃথিবীর কাছাকাছি আসতে থাকে তাহলে একসময় এটির পৃথিবী সাথে সংঘর্ষ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু চাঁদ প্রতিবছর প্রায় ৩.৮ সেন্টিমিটার(১.৫ ইঞ্চি) করে পৃথিবী হতে দূরে চলে যাচ্ছে। কিন্তু দেখা গেছে এই দূরে সরে যাওয়ার হার ধ্রুব নয়। তবে যেহেতু দূরে সরে যাচ্ছে তাই  চাঁদের পৃথিবীতে আছড়ে পরার সম্ভবনা খুবই অল্প, কিন্তু আমাদের কল্পনা করতে তো কোনো দোষ নেই। 

জোয়ার-ভাটার সৃষ্টি হয় চাঁদের অভিকর্ষ বলের কারণে। এই অভিকর্ষণের কারণেই কিন্তু পৃথিবী নির্দিষ্ট অক্ষে স্থির থাকতে পারে। পৃথিবীর বুকে স্থায়ী আবহাওয়া বিরাজ করে। এজন্য চাঁদ কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা ভূমিকা পালন করে আমাদের জীবনে। প্রচলিত রয়েছে যে, চাঁদের সৃষ্টি হয়েছিল মঙ্গল গ্রহের সাথে পৃথিবীর সংঘর্ষ অথবা ধাক্কা লাগার ফলে। পৃথিবী ভেঙে তার ভাঙ্গা টুকরোগুলো মিলিত হয়েই চাঁদ তৈরি হয়। চাঁদ আসলে পৃথিবীর রোশ লিমিটের কাছাকাছি আসতে না আসতেই  টুকরো টুকরো হয়ে যাবে। 

অধিক ভরসম্পন্ন বস্তুর যে দুরত্বে আসলে কোন স্বল্প ভরসম্পন্ন বস্তু ভেঙ্গে যায় তাই রোশ সীমা বা রোশ লিমিট (Roche limit)। ১৮৪৮ সালে প্রথম ফ্রেঞ্চ বিজ্ঞানী ডুয়ার্ড রোশ এই লিমিটের বিষয়টি বলেন। 

অর্থাৎ কোনো একটি নির্দিষ্ট গ্রহের কেন্দ্র হতে একটি নির্ধারিত দূরত্ব পর্যন্ত অন্য কোনো ভিন্ন গ্রহ অবস্থান করতে পারে না। এই রোশ সীমানা বা লিমিটের ভেতর অথবা বাইরে যেকোনো দিক থেকে কোনো গ্রহাণু প্রবেশ করতে গেলে যেটির ভর অপেক্ষাকৃত কম, সেটি ধ্বংস হয়ে যায়। এই লিমিটের কারণে চাঁদ যদি পৃথিবীর কাছাকাছি আসার চেষ্টা করে, তবে যেই মুহূর্তে চাঁদ পৃথিবীর রোশ লিমিটে পৌঁছাবে তখনই এটি ভেঙে টুকরো টুকরো হয়ে যাবে। পৃথিবীর রোশ লিমিট ১১ হাজার ৪১৭ মাইল। এই সীমানার নিকটে আসলেই চাঁদ ভেঙে যেতে শুরু করবে। চাঁদ এই সীমানার কাছাকাছি আসার পরপরই এটি পৃথিবীর ঘূর্ণনকেও প্রভাবিত করবে, দিন অপেক্ষাকৃত ছোট হবে এবং তাপমাত্রার উপরও প্রভাব ফেলবে। চাঁদের ভাঙা অংশগুলো অনেক উঁচুতে ভাঙ্গা অবস্থায় পৃথিবীর চারপাশে ঘুরতে থাকবে। হতে পারে ভাঙ্গা অংশগুলো সংগঠিত হয়ে পৃথিবীর জন্য আরেকটি নতুন উপগ্রহ তৈরি হলো কিংবা শনি গ্রহের মতো ভাঙা অংশগুলো মিলিত হয়ে পৃথিবীর পাশে একটি বলয় সৃষ্টি করলো। তবে কখনোই এই ভাঙা অংশগুলো আজীবন এভাবে ঘুরতে থাকবে না। বেশ কিছুদিন পর যখন একটু একটু করে যখন এদের ভর কমত থাকবে তখন এগুলো অভিকর্ষ বলের কারণে পৃথিবীর উপর আছড়ে পড়বে। এতে করে চাঁদের ভাঙা অংশগুলো বড় বড় উল্কার ন্যায় পৃথিবীতে নেমে আসবে। আর তার ফলে পৃথিবীর বিভিন্ন স্থান ক্ষতিগ্রস্ত হতে হতে একসময় পৃথিবী-ই ধ্বংস হয়ে যাবে। 

লিখেছেনঃ প্রজ্ঞা পারমিতা কর্মকার - Team Science Bee

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

+1 টি ভোট
1 উত্তর 38 বার দেখা হয়েছে
+2 টি ভোট
2 টি উত্তর 252 বার দেখা হয়েছে
+3 টি ভোট
1 উত্তর 485 বার দেখা হয়েছে
27 ডিসেম্বর 2021 "পদার্থবিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Rishad Ud Doula (5,740 পয়েন্ট)
+1 টি ভোট
2 টি উত্তর 152 বার দেখা হয়েছে
0 টি ভোট
1 উত্তর 62 বার দেখা হয়েছে

9,130 টি প্রশ্ন

15,165 টি উত্তর

4,506 টি মন্তব্য

111,720 জন সদস্য

77 জন অনলাইনে রয়েছে
5 জন সদস্য এবং 72 জন গেস্ট অনলাইনে
  1. MargaritaN63

    100 পয়েন্ট

  2. Hugo3234418

    100 পয়েন্ট

  3. AbigailHlo45

    100 পয়েন্ট

  4. ZeldaJerniga

    100 পয়েন্ট

  5. ChristenDela

    100 পয়েন্ট

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্মুক্ত বিজ্ঞান প্রশ্নোত্তর সাইট সায়েন্স বী QnA তে আপনাকে স্বাগতম। এখানে যে কেউ প্রশ্ন, উত্তর দিতে পারে। উত্তর গ্রহণের ক্ষেত্রে অবশ্যই একাধিক সোর্স যাচাই করে নিবেন। অনেকগুলো, প্রায় ২০০+ এর উপর অনুত্তরিত প্রশ্ন থাকায় নতুন প্রশ্ন না করার এবং অনুত্তরিত প্রশ্ন গুলোর উত্তর দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। প্রতিটি উত্তরের জন্য ৪০ পয়েন্ট, যে সবচেয়ে বেশি উত্তর দিবে সে ২০০ পয়েন্ট বোনাস পাবে।


Science-bee-qna

সর্বাপেক্ষা জনপ্রিয় ট্যাগসমূহ

মানুষ পানি ঘুম এইচএসসি-উদ্ভিদবিজ্ঞান এইচএসসি-প্রাণীবিজ্ঞান জীববিজ্ঞান রোগ চোখ পৃথিবী - শরীর পদার্থ রক্ত কী মোবাইল ক্ষতি আলো চিকিৎসা এইচএসসি-আইসিটি চুল মাথা মহাকাশ সূর্য বৈজ্ঞানিক পদার্থবিজ্ঞান প্রাণী পার্থক্য কেন স্বাস্থ্য প্রযুক্তি গরম ডিম কারণ #জানতে রং খাওয়া বৃষ্টি শীতকাল গণিত #biology উপকারিতা রাসায়নিক কাজ চাঁদ আগুন সাপ বিদ্যুৎ বিজ্ঞান রাত সাদা লাল খাবার উপায় শক্তি দুধ গাছ ভয় আবিষ্কার #ask ব্যাথা মশা ঠাণ্ডা হাত কি মনোবিজ্ঞান মাছ শব্দ গ্রহ কালো উদ্ভিদ বৈশিষ্ট্য সমস্যা পা রসায়ন হলুদ ভাইরাস স্বপ্ন রঙ আম মেয়ে মস্তিষ্ক মন বাতাস ব্যথা পাখি চার্জ গ্যাস পাতা কান্না বিস্তারিত দাঁত বিড়াল আকাশ #science নাক মৃত্যু কুকুর হরমোন তাপমাত্রা পাকা
...