ঝালজাতীয় খাবার খাওয়ার পর মুখের ঝাল ভাব কমাতে- পানিকে না বলুন, বেছে নিন দুধ ,দই ,চিনি ,মধু,লেবু ,টমেটো। - ScienceBee প্রশ্নোত্তর

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রশ্নোত্তর দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম! প্রশ্ন-উত্তর দিয়ে জিতে নিন পুরস্কার, বিস্তারিত এখানে দেখুন।

0 টি ভোট
572 বার দেখা হয়েছে
"লাইফ" বিভাগে করেছেন (350 পয়েন্ট)

ঝালজাতীয় কিছু খাওয়ার পর মুখ জ্বলতে থাকে। কেউ কেউ তখন গ্লাসভরা পানি পান করেন। কিন্তু পানি খাওয়ার পর ঝাল যেন আরও বেড়ে যায়! এই ঝাল থেকে চটজলদি মুক্তি পেতে কয়েকটি খাবার আছে। জেনে নিন খাবারগুলো সম্পর্কে:
দুধজাতীয় খাবার: ঝাল লাগলে দুগ্ধজাত খাবার দ্রুত জাদুর মতো কাজ করে। ঠান্ডা এক চুমুক দুধ বা এক চামচ দই মুখের জ্বালা জুড়াতে পারে। দই মুখে দিলে দ্রুত মুখের জ্বলুনি কমে যাবে। দুগ্ধজাত খাবারে ক্যাসেইন নামক এক ধরনের উপাদান থাকে, যা ঝালে থাকা ক্যাপসিসিনকে ভেঙে ফেলে ও এর প্রভাব থেকে মুক্তি দেয়।
চিনি বা মধু: মুখে বেশি ঝাল লাগলে একটু চিনি বা এক চামচ মধু খেয়ে নিতে পারেন। তেলজাতীয় ক্যাপসিসিনকে চিনি বা মধু শোষণ করে নেয় এবং মুখের জ্বলা ভাব দ্রুত দূর করে।
শ্বেতসার: মুখে বেশি ঝাল লাগলে দ্রুত ফোলা রুটি বা একগাল ভাত খেয়ে নিতে পারেন।এতে কিছুটা ক্যাপসিসিন শোষিত হয়। 
টমেটো ও লেবু: টমেটো ও লেবু মুখের ঝালভাব দূর করতে দারুণ কাজে দেয়। ঝালের যে অ্যাসিড থাকে, তা টমেটো বা লেবু খেলে কার্যকারিতা হারায়। ঝাল লাগলে তাই দ্রুত দু-এক টুকরো টমেটো মুখে দিতে পারেন। কমলা, আনারস ও লেবুর রসেও একই ধরনের উপাদান আছে।

পানি কাজে আসে না: ঝাল লাগলে অনেকেই পানি পান করেন। ক্যাপসিসিন  পানির সঙ্গে মেশে না। বরং পানি খেলে বেশি ঝালবোধ হয়। 

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (43,930 পয়েন্ট)
ঝালজাতীয় কিছু খাওয়ার পর অনেকেরই মুখ জ্বলতে থাকে। তখন মুখ দিয়ে ঘন ঘন বাতাস টেনে ঝাল কমানোর চেষ্টা করেন। কেউ কেউ গ্লাসভরা পানি পান করেন। কিন্তু পানি খাওয়ার পর ঝাল যেন আরও বেড়ে যায়। এই ঝাল থেকে চটজলদি মুক্তি পেতে কয়েকটি খাবার আছে। জেনে নিন খাবারগুলো সম্পর্কে:

দুধজাতীয় খাবার: ঝাল লাগলে দুগ্ধজাত খাবার দ্রুত জাদুর মতো কাজ করে। ঠান্ডা এক চুমুক দুধ বা এক চামচ দই মুখের জ্বালা জুড়াতে পারে। দই মুখে দিলে দ্রুত মুখের জ্বলুনি কমে যাবে। দুগ্ধজাত খাবারে ক্যাসেইন নামক এক ধরনের উপাদান থাকে, যা ঝালে থাকা ক্যাপসিসিনকে ভেঙে ফেলে ও এর প্রভাব থেকে মুক্তি দেয়।

চিনি বা মধু: মুখে বেশি ঝাল লাগলে একটু চিনি বা এক চামচ মধু খেয়ে নিতে পারেন। তেলজাতীয় ক্যাপসিসিনকে চিনি বা মধু শোষণ করে নেয় এবং মুখের জ্বলা ভাব দ্রুত দূর করে।

শ্বেতসার: মুখে বেশি ঝাল লাগলে দ্রুত ফোলা রুটি বা একগাল ভাত খেয়ে নিতে পারেন। ক্যাপসিসিন ও মুখের মধ্যে প্রাকৃতিক বাধা তৈরি করে শ্বেতসার। এতে কিছুটা ক্যাপসিসিন শোষিত হয়। ঝাল মসলাছাড়া সেদ্ধ আলুও কাজে দিতে পারে।

টমেটো ও লেবু: টমেটো ও লেবু মুখের ঝালভাব দূর করতে দারুণ কাজে দেয়। ঝালের যে অ্যাসিড থাকে, তা টমেটো বা লেবু খেলে কার্যকারিতা হারায়। ঝাল লাগলে তাই দ্রুত দু-এক টুকরো টমেটো মুখে দিতে পারেন। কমলা, আনারস ও লেবুর রসেও একই ধরনের উপাদান আছে।

পানি কাজে আসে না: ঝাল লাগলে অনেকেই পানি পান করেন। ক্যাপসিসিন প্রাকৃতিক তেল ও পানির সঙ্গে মেশে না। তাই মুখের ঝিল্লিতে ক্যাপসিসিনের প্রভাব কমাতে পারে না পানি। বরং পানি খেলে তেল ছড়িয়ে যায় এবং বেশি ঝালবোধ হয়। এর বদলে টমেটো, মধু বা পাউরুটি খেয়ে দেখতে পারেন। তথ্যসূত্র: এনডিটিভি অনলাইন

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

+3 টি ভোট
1 উত্তর 1,620 বার দেখা হয়েছে
+10 টি ভোট
2 টি উত্তর 2,330 বার দেখা হয়েছে
+10 টি ভোট
5 টি উত্তর 6,648 বার দেখা হয়েছে
+4 টি ভোট
1 উত্তর 174 বার দেখা হয়েছে

10,755 টি প্রশ্ন

18,420 টি উত্তর

4,735 টি মন্তব্য

246,859 জন সদস্য

39 জন অনলাইনে রয়েছে
0 জন সদস্য এবং 39 জন গেস্ট অনলাইনে
  1. shuvosheikh

    360 পয়েন্ট

  2. talal

    150 পয়েন্ট

  3. Ahamd_Muttaki

    110 পয়েন্ট

  4. Preetom Porbo

    110 পয়েন্ট

  5. nahidemon

    110 পয়েন্ট

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্মুক্ত বিজ্ঞান প্রশ্নোত্তর সাইট সায়েন্স বী QnA তে আপনাকে স্বাগতম। এখানে যে কেউ প্রশ্ন, উত্তর দিতে পারে। উত্তর গ্রহণের ক্ষেত্রে অবশ্যই একাধিক সোর্স যাচাই করে নিবেন। অনেকগুলো, প্রায় ২০০+ এর উপর অনুত্তরিত প্রশ্ন থাকায় নতুন প্রশ্ন না করার এবং অনুত্তরিত প্রশ্ন গুলোর উত্তর দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। প্রতিটি উত্তরের জন্য ৪০ পয়েন্ট, যে সবচেয়ে বেশি উত্তর দিবে সে ২০০ পয়েন্ট বোনাস পাবে।


Science-bee-qna

সর্বাপেক্ষা জনপ্রিয় ট্যাগসমূহ

মানুষ পানি ঘুম পদার্থ - জীববিজ্ঞান এইচএসসি-উদ্ভিদবিজ্ঞান এইচএসসি-প্রাণীবিজ্ঞান পৃথিবী চোখ রোগ রাসায়নিক শরীর রক্ত আলো #ask মোবাইল ক্ষতি চুল কী চিকিৎসা পদার্থবিজ্ঞান সূর্য #science প্রযুক্তি স্বাস্থ্য মাথা প্রাণী গণিত বৈজ্ঞানিক মহাকাশ পার্থক্য এইচএসসি-আইসিটি #biology বিজ্ঞান খাওয়া গরম শীতকাল #জানতে কেন ডিম চাঁদ বৃষ্টি কারণ কাজ বিদ্যুৎ রাত রং উপকারিতা শক্তি লাল আগুন সাপ মনোবিজ্ঞান গাছ খাবার সাদা আবিষ্কার দুধ উপায় হাত মশা মাছ ঠাণ্ডা মস্তিষ্ক শব্দ ব্যাথা ভয় বাতাস স্বপ্ন তাপমাত্রা গ্রহ রসায়ন উদ্ভিদ কালো পা কি বিস্তারিত রঙ মন পাখি গ্যাস সমস্যা মেয়ে বৈশিষ্ট্য হলুদ বাচ্চা সময় ব্যথা মৃত্যু চার্জ অক্সিজেন ভাইরাস আকাশ গতি দাঁত আম হরমোন বাংলাদেশ বিড়াল
...