মানুষ কেন অতীত ভুলে যায় ? - ScienceBee প্রশ্নোত্তর

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রশ্নোত্তর দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম! প্রশ্ন-উত্তর দিয়ে জিতে নিন পুরস্কার, বিস্তারিত এখানে দেখুন।

0 টি ভোট
386 বার দেখা হয়েছে
"মনোবিজ্ঞান" বিভাগে করেছেন (4,210 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (4,210 পয়েন্ট)
একটা সুবিশাল লাইব্রেরিতে হাজার হাজার পাঠক আসেন। সারাদিন এটা ওটা খুঁজেন, বই বের করে পড়েন, আবার পড়া শেষে এখানে ওখানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রেখে চলে যান।

পাঠক চলে যাবার পর সন্ধ্যায় কয়েকজন লাইব্রেরি কর্মী নেমে পড়েন তাদের কাজে। তাদের কাজ বইগুলোকে আবার সুন্দর করে যথাস্থানে তাকে তাকে রেখে দেন। পরদিন যাতে যে কেউ  নিমিষেই খুঁজে নিতে পারে।

আমাদের ব্রেইনের ভেতরে একটি অতি ছোট একটি অংশ আছে যার নাম হিপ্পোক্যাম্পাস। তার কাজটি অনেকটা সেই লাইব্রেরি কর্মীদের মতো।

আমাদের সারা জীবনের ঘটে যাওয়া প্রতি মুহূর্তের ঘটনাগুলো হিপ্পোক্যাম্পাস ক্রমানুসারে স্মৃতির ফিতায় সাজিয়ে রাখে। আপনি যেই মুহূর্তেই কোনো ঘটনা মনে করতে চাইলেন, হিপ্পোক্যাম্পাসের কাজ হলো সেটা আপনার মানসপটে ছায়া ছবির মতো তুলে ধরা।

ধরুন ছেলে বেলায় একবার স্কুল পালিয়ে ক্রিকেট খেলতে গিয়েছেন। আপনি চোখটা বন্ধ করে মনে করার চেষ্টা করলেন। রঙিন হয়ে সেই মুহূর্তগুলো আপনার স্মৃতির আয়নায় ভেসে উঠতে থাকলো এক এক করে। পুরো সিকুয়েন্স মনে পড়লো। সকল সহপাঠীদের চেহারা, হাসি, হৈ-হুল্লোড়, এমনকি সেদিনের কথাবার্তাগুলো।

এটা কিভাবে সম্ভব হলো? এই অসম্ভব কাজটিই করে রাখে হিপ্পোক্যাম্পাস। সে নিজের মধ্যে সব স্মৃতিগুলো ভবিষ্যতের প্রয়োজনে বা অপ্রয়োজনে সাজিয়ে রেখেছে ফলেই আমরা মনে করতে পারি।

হিপ্পোক্যাম্পাস এই কাজটি করে আমরা যখন দিনের সব কাজ শেষ করে রাতে ঘুমিয়ে পড়ি তখন। ঘুমের মধ্যে সারা দেহ ক্লান্ত হয়ে নিস্তেজ হয়ে পড়ে থাকে জেগে থাকে কেবল ব্রেইন। ফ্লাই করার পর অটোপাইলট যেভাবে উড়োজাহাজ কয়েক হাজার মাইল উড়িয়ে নিয়ে চলে যায় গন্তব্যে, ব্রেইন ঘুমের সময় পুরো শরীরকে সারারাত পাহারা দিয়ে নিয়ে যায় ভোর বেলায়।

কিছু কিছু রোগ আছে মানুষ অতীতের কথাবার্তা, ঘটনা ধীরে ধীরে ভুলে যায়। হিপ্পোক্যাম্পাস যেসব রোগে শুকিয়ে যায় সেসব রোগের রোগীরা তাদের জীবনের অতীতের সকল কিছু ধীরে ধীরে ভুলে যান। ডিমেনসিয়া, এলজিমারস, ডিপ্রেশন  অন্যতম রোগ যাতে রোগীর ব্রেইন তথা হিপ্পোক্যাম্পাস শুকিয়ে যায়, রোগী ধীরে ধীরে তার অতীত ভুলে যেতে থাকে।

ডিপ্রেশন বা হতাশা, সারাক্ষণ নেতিবাচক চিন্তা ভাবনায় মস্তিষ্কের গুরুত্বপূর্ণ অংশ ‘হিপ্পোক্যাম্পাস’ ধীরে ধীরে শুকিয়ে যায়।

বয়সের প্রভাবেও এক সময় আমাদের ব্রেইনের কার্যক্ষমতা হ্রাস পায় অর্থাৎ ব্রেইন শুকিয়ে যায়। সেজন্যে বুড়ো বয়সে আমাদের দাদা দাদী, নানা নানী অনেক সময় ঠিকমতো সব কিছু মনে করতে পারেন না।

লেখক: ডা. সাঈদ এনাম ওয়ালিদ

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

+10 টি ভোট
2 টি উত্তর 8,387 বার দেখা হয়েছে
+5 টি ভোট
1 উত্তর 1,051 বার দেখা হয়েছে
+1 টি ভোট
1 উত্তর 2,411 বার দেখা হয়েছে

10,744 টি প্রশ্ন

18,397 টি উত্তর

4,731 টি মন্তব্য

243,977 জন সদস্য

21 জন অনলাইনে রয়েছে
0 জন সদস্য এবং 21 জন গেস্ট অনলাইনে
  1. MIS

    990 পয়েন্ট

  2. shuvosheikh

    320 পয়েন্ট

  3. তানভীর রহমান ইমন

    160 পয়েন্ট

  4. unfortunately

    120 পয়েন্ট

  5. Muhammad_Alif

    120 পয়েন্ট

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্মুক্ত বিজ্ঞান প্রশ্নোত্তর সাইট সায়েন্স বী QnA তে আপনাকে স্বাগতম। এখানে যে কেউ প্রশ্ন, উত্তর দিতে পারে। উত্তর গ্রহণের ক্ষেত্রে অবশ্যই একাধিক সোর্স যাচাই করে নিবেন। অনেকগুলো, প্রায় ২০০+ এর উপর অনুত্তরিত প্রশ্ন থাকায় নতুন প্রশ্ন না করার এবং অনুত্তরিত প্রশ্ন গুলোর উত্তর দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। প্রতিটি উত্তরের জন্য ৪০ পয়েন্ট, যে সবচেয়ে বেশি উত্তর দিবে সে ২০০ পয়েন্ট বোনাস পাবে।


Science-bee-qna

সর্বাপেক্ষা জনপ্রিয় ট্যাগসমূহ

মানুষ পানি ঘুম পদার্থ - জীববিজ্ঞান এইচএসসি-উদ্ভিদবিজ্ঞান এইচএসসি-প্রাণীবিজ্ঞান পৃথিবী চোখ রোগ রাসায়নিক শরীর রক্ত আলো #ask মোবাইল ক্ষতি চুল কী চিকিৎসা পদার্থবিজ্ঞান সূর্য প্রযুক্তি #science স্বাস্থ্য প্রাণী বৈজ্ঞানিক মাথা গণিত মহাকাশ পার্থক্য এইচএসসি-আইসিটি #biology বিজ্ঞান খাওয়া গরম শীতকাল #জানতে কেন ডিম চাঁদ বৃষ্টি কারণ কাজ বিদ্যুৎ রাত রং উপকারিতা শক্তি লাল আগুন সাপ মনোবিজ্ঞান গাছ খাবার সাদা আবিষ্কার দুধ উপায় হাত মশা মাছ ঠাণ্ডা মস্তিষ্ক শব্দ ব্যাথা ভয় বাতাস স্বপ্ন তাপমাত্রা গ্রহ রসায়ন উদ্ভিদ কালো পা কি বিস্তারিত রঙ মন পাখি গ্যাস সমস্যা মেয়ে বৈশিষ্ট্য হলুদ বাচ্চা সময় ব্যথা মৃত্যু চার্জ অক্সিজেন ভাইরাস আকাশ গতি দাঁত আম হরমোন বিড়াল কান্না
...