Current এ শট খেলে শরীরে কি ধরনের সমস্যা হতে পারে? - ScienceBee প্রশ্নোত্তর

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রশ্নোত্তর দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম! প্রশ্ন-উত্তর দিয়ে জিতে নিন পুরস্কার, বিস্তারিত এখানে দেখুন।

+1 টি ভোট
216 বার দেখা হয়েছে
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন (370 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (2,000 পয়েন্ট)

প্রথমে আলোচনা করা যাক, কি পরিমাণ ইলেক্ট্রিক্যাল শক খেলে কি পরিমাণ ক্ষতি হবে????

image

SHOCK

কি পরিমাণ ইলেক্ট্রিক্যাল শক খেলে কি পরিমাণ ক্ষতি হবে????

শুকনা জায়গায় ৫০ভোল্ট পর্যন্ত সেফ, ভেজা জায়গায় সেটা হয়ে যায় ২৫ ভোল্ট অবশ্যই এসির ক্ষেত্রে৷ ডিসির ক্ষেত্রে সেটা ১২০ভোল্ট, সরাসরি কিংবা আলাদা সংস্পর্শে আসলে।

ফ্রিকোয়েন্সী বাড়ার সাথে সাথে দেহের মধ্যে দিয়ে কারেন্ট প্রবাহের ফলে ক্ষয়ক্ষতির মাত্রা অনেকাংশে কমে যায়।

৫০-৬০হার্জ এর এসি কারেন্ট, সমপরিমাণ ডিসি কারেন্ট অপেক্ষা অধিক ক্ষতিসাধন করে থাকে। ছবিতে শরীরের মধ্য দিয়ে একই পরিমাণ এসি কারেন্ট ও ডিসি কারেন্ট প্রবাহের তুলনা করা হয়েছে:

image

দেহের মধ্যে দিয়ে কি পরিমাণ কারেন্ট যাবে তা নির্ভর করে দেহের রোধ এর উপরে। দেহের রোধ আবার বিভিন্ন বিষয়ের উপর নির্ভর করে থাকে:

  1. - আর্দ্র চামড়া
  2. - কনট্যাক্ট পয়েন্ট এ চামড়ার পুরুত্ব
  3. - ওজন
  4. - বয়স
  5. - লিঙ্গ

হার্টের মধ্যে দিয়ে যাওয়া কারেন্ট সবচেয়ে বেশি ক্ষতি করে থাকে, কারণ হৃদপিন্ডের নিজস্ব ফ্রিকোয়েন্সী আছে, মিনিটে ৭২ বার, ৫০-৬০ হার্জের কারেন্ট গেলে মিনিটে হৃদপিন্ডের কম্পন্ন সংখ্যার তারতম্য ঘটে, ফলে হার্ট ফেইলার ঘটে।

ছবিতে দেখুন, শরীরে বিভিন্ন অংশের রোধ এবং বিদ্যুৎ প্রবাহ :

image

যেসকল সমস্যার দেখা দেয় তা হল:

ইলেক্ট্রিক্যাল শকের ফলে ঘটা ভেন্ট্রিকুলার ফাইব্রিলেশন এর ফলে হৃদপিন্ডের স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হয়, ফলে কার্ডিয়াক অ্যারেষ্ট এবং ব্রেইনে সিগ্ল্যাল পাঠানো বন্ধ হয়ে যায়, ফলে খুব তাড়াতাড়ি মৃত্যু ঘটে।
জুল ইফেক্ট এর ফলেই শরীরে জ্বালাপোড়া ঘটে, আগুনে পুড়ে যাওয়ার মতই হয়.

এখন আসুন দেখি, বিদ্যুৎ প্রবাহ শরীরে কীভাবে ক্ষতি করে::

  • মানুষের শরীরে বিদ্যুৎ প্রবাহের ফলে নিম্নলিখিত উপাদানগুলো প্রভাবিত ও পরিবর্তিত হয়:বিদ্যুতের তার শরীরের যে স্থানের সংস্পর্শে আসে, সেখানে তাপ উৎপন্ন হয় এবং গরম হয়ে যায়, ফলে জায়গাটি গরম হয়ে পুড়ে/গলে যায়৷

image

  • শরীরে ভিতরে কোথায় কেমন ক্ষতি হবে, তা নির্ভর করবে শরীরের কোন অংশ দিয়ে কেমন বিদ্যুৎ প্রবাহিত হচ্ছে তার উপর৷

image

image

ছবিতে শরীরের কোনো দুইটি অংশ বৈদ্যুতিক তারের ধনাত্মক ও ঋণাত্মক অংশের সংস্পর্শে আসলে কোন বিদ্যুত কখন কোন অংশ দিয়ে প্রবাহিত হবে তা দেখানো হয়েছে৷

  • মানুষের শরীরের ৭০% পানি, যা বিদ্যুৎ পরিবাহী৷ শরীরেের এই পানির মধ্য দিয়ে বিদ্যুৎ প্রবাহের ফলে পানির তড়িৎবিশ্লেষণ শুরু হয়৷ কিন্তু, শরীরের মূল ক্ষতির কারণ এটি নয়৷ মূলত, শরীরের পানি তড়িৎবিশ্লেষ হতে অনেক বেশি সময় প্রয়োজন৷ তড়িৎ বিশ্লেষণ - উইকিপিডিয়া
  • মানুষের শরীরে স্নায়ুতন্ত্র কাজ করে বৈদ্যুতিক সংকেতের মাধ্যমে৷ শরীরের পানি দ্রবীভূত সোডিয়াম ও পটাশিয়াম আয়নের মাধ্যেমে নিউরণ হল সকল কোষ বৈদ্যুতিক সিগন্যাল উৎপন্ন করে এবং শরীরের অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ রক্ষা করে৷ শরীর বিদ্যুতায়িত হলে এই যোগাযোগ ব্যবস্থা ব্যহত হয়৷ ব্রেইন যদি সামান্য সময়ের জন্যও এই যোগাযোগ রক্ষা করতে না পারে, তবে আপনি জ্ঞান হারাবেন৷ এছাড়া, স্নায়ুকোষগুলোর মধ্য দিয়ে অতিমাত্রায় বিদ্যুৎ প্রবাহের ফলে স্নায়ুকোষগুলো মারা যেতে পারে৷ ফলে আপনি স্মৃতী হারিয়ে ফেলতে পারেন, কিংবা প্রতিবন্ধী হয়ে যেতে পারেন৷ শরীর অবশ (Paralysis) হয়ে যেতে পারে৷
  • হৃদপিন্ডের ভিতর দিয়ে বিদ্যুৎ প্রবাহিত হলে হৃদপিন্ডের নিজস্ব বৈদ্যুতিক সংকেত ব্যবস্থাকে ব্যাহত করতে পারে৷ যার ফলে হার্ট এটাক (Atrial/ventricular fibrillation, cardiac arrest, heart block) ইত্যাদি সমস্যা হতে পারে৷ ফলে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে যেতে পারেে এবং মানুস মারা যেতে পারে৷

image

image

ছবিতে হৃদপিন্ডের বিদ্যুত প্রবাহ দেখানো হয়েছে৷

  • শরীরে রাসায়নিক পরিবর্তন: বিদ্যুৎ প্রবাহের ফলে পরিবাহী বস্তুর রাসায়নিক পরিবর্তন ঘটে৷ শরীরে এনজাইম, হরমোন, গাঠনিক প্রোটিনসহ অনেক রকম প্রোটিন রয়েছে৷ এছাড়াও রয়েছে DNA, RNA, আরো আছে নিউক্লিয় প্রোটিন৷ এসকল প্রোটিন অণুগোল নির্দিষ্ট গঠন ও কাজ রয়েছে৷



বিদ্যুৎপ্রবাহের ফলে এই অণুগুলোর (Protein, enzyme, hormone, DNA, RNA, etc) গঠন নষ্ট হয়ে যায়৷ ফলে এগুলো তাদের নিজস্ব কাজ করতে পারেনা৷

  • এছাড়া রক্তের pH পরিবর্তন হয়ে যায়৷ এবং এর ফলেও উপরোক্ত প্রোটিন অণুগুলো নষ্ট হয়ে যেতে পারে৷

উপসংহার: বিদ্যুৎায়িত হলে নানান রকম ক্ষতির সম্ভাবনা থাকলেও তিনটি উপায়েে শরীর ক্ষতির সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি৷ তা হল: শরীরের প্রোটিন অণুর গঠন নষ্ট হয়ে যাওয়া, হৃদযন্ত্রের ভিতর দিয়ে বিদ্যুৎ প্রবাহিত হওয়া, স্নায়ুকোষের ভিতর দিয়ে বিদ্যুৎ প্রবাহিত হওয়া৷ ক্ষতির পরিমাণ নির্ভর করে:

  1. - ভোল্টেজ
  2. - কারেন্ট প্রবাহের
  3. - কারেন্টের মান
  4. - ফ্রিকোয়েন্সী
  5. - কারেন্ট প্রবাহের পথ
  6. - মানুষটির রিয়্যাক্ট করার ক্ষমতার উপরে

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি ভোট
2 টি উত্তর 18 বার দেখা হয়েছে
+2 টি ভোট
1 উত্তর 7 বার দেখা হয়েছে
0 টি ভোট
1 উত্তর 8 বার দেখা হয়েছে

7,697 টি প্রশ্ন

9,646 টি উত্তর

4,367 টি মন্তব্য

64,082 জন সদস্য

100 জন অনলাইনে রয়েছে
8 জন সদস্য এবং 92 জন গেস্ট অনলাইনে
  1. Ismot Rahman

    7110 পয়েন্ট

  2. Hojayfa Ahmed

    5330 পয়েন্ট

  3. Abdullah Shuvo

    1250 পয়েন্ট

  4. Prantik Sarder

    850 পয়েন্ট

  5. Fakid Khan

    780 পয়েন্ট

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্মুক্ত বিজ্ঞান প্রশ্নোত্তর সাইট সায়েন্স বী QnA তে আপনাকে স্বাগতম। এখানে যে কেউ প্রশ্ন, উত্তর দিতে পারে। উত্তর গ্রহণের ক্ষেত্রে অবশ্যই একাধিক সোর্স যাচাই করে নিবেন। অনেকগুলো, প্রায় ২০০+ এর উপর অনুত্তরিত প্রশ্ন থাকায় নতুন প্রশ্ন না করার এবং অনুত্তরিত প্রশ্ন গুলোর উত্তর দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। প্রতিটি উত্তরের জন্য ৪০ পয়েন্ট, যে সবচেয়ে বেশি উত্তর দিবে সে ২০০ পয়েন্ট বোনাস পাবে।


Science-bee-qna

সর্বাপেক্ষা জনপ্রিয় ট্যাগসমূহ

মানুষ পানি এইচএসসি-উদ্ভিদবিজ্ঞান ঘুম এইচএসসি-প্রাণীবিজ্ঞান রোগ চোখ - জীববিজ্ঞান পৃথিবী শরীর এইচএসসি-আইসিটি মোবাইল কী ক্ষতি রক্ত চিকিৎসা চুল আলো মাথা কারণ উপকারিতা গরম প্রাণী বৈজ্ঞানিক বৃষ্টি পার্থক্য শীতকাল ডিম খাওয়া কাজ সাপ রং #biology বিদ্যুৎ প্রযুক্তি কেন লাল খাবার রাত সাদা সমস্যা আগুন ভয় সূর্য গাছ হাত মহাকাশ মশা উপায় শক্তি কি #জানতে ব্যাথা পদার্থবিজ্ঞান মাছ বৈশিষ্ট্য পা মনোবিজ্ঞান গণিত দুধ স্বাস্থ্য ঠাণ্ডা রসায়ন #ask গ্রহ কালো শব্দ আম মেয়ে উদ্ভিদ বিজ্ঞান দাঁত স্বপ্ন বাচ্চা নাক মানসিক হলুদ রঙ চাঁদ ঔষধ বাতাস আবিষ্কার ভাইরাস বিড়াল পাতা বিস্তারিত চার্জ ফোবিয়া হরমোন ত্বক তাপমাত্রা মন পাখি চা নখ জন্ম পাকা মৃত্যু কুকুর
...