খেজুর ও শসা একসাথে খেলে স্বাস্থ্য বাড়ে, কতটুকু সত্য? - ScienceBee প্রশ্নোত্তর

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রশ্নোত্তর দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম! প্রশ্ন-উত্তর দিয়ে জিতে নিন পুরস্কার, বিস্তারিত এখানে দেখুন।

+5 টি ভোট
23,838 বার দেখা হয়েছে
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন (240 পয়েন্ট)

4 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (43,930 পয়েন্ট)
খেজুর

একটি অসাধারণ ফল। পুষ্টিগুনে ভরপুর এই ফল হোক প্রতিদিনের ইফতারের সঙ্গী। জেনে নিন খেজুরের উপকারিতা।

- ডেক্সট্রোজ এবং ফ্রুক্টোজ হল খেজুরের দুই শর্করা। যা অতি দ্রুত আপনাকে শক্তি দেয়।

- সারাদিনের অভুক্ত পাকস্থলী কে তৈরী করে খাবার গ্রহণর জন্য।

- খেজুরে আছে ভিটামিন এ, বি কমপ্লেক্স, সি, কে। ভিটামিন এ, সি এবং কে- কাজ করে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে। ভিটামিন বি কমপ্লেক্স মস্তিষ্ক শক্তিশালি করে। পাশপাশি ত্বক করে সুন্দর।

 

খেজুর।

- এতে কোনো ফ্যাট নেই। শুধু তাই নয়, খেজুর ক্ষতিকর কোলেস্টেরল পরিশোষণ করতেও বাধা দেয়।

 

- এতে আছে পটাশিয়াম, কপার, আয়রন, সোডিয়াম ইত্যাদি। যা শরীরের লবণ ঠিক রাখে, রক্ত তৈরিতে সাহায্য করে।

- রোজায় খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তনের জন্য কোষ্টকাঠিন্য হতে পারে, খেজুর এর থেকে মুক্তি দেয়।

- খেজুরের আছে অ্যান্টিক্যানসার ও অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি গুন।

- গর্ভাবস্থায় খেজুর খাওয়া খুবই ভালো।

 

তবে অনেকিই হয়ত জানেন না এসব স্বাস্থ্যের জন্য কতটা উপকারী।

এই বিষয়ে জানিয়েছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজের ডা. আজমেরি বিনতে আসলাম।

শসা

সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর খাদ্য এই রোজায়, গরমে ইফতারে শসা খান আর তরতাজা বোধ করুন। আর এর উপকারিতা জানার পর তো শসার প্রেমেই পড়ে যাবেন!

-  শসায় থাকে প্রচুর পানি। প্রায় শতকরা ৯৬ ভাগ পানিসমৃদ্ধ ১টি শসা আপনাকে দুই গ্লাস সমান পানি সরবরাহ করবে।

- শসায় থাকে প্রচুর ভিটামিন- এ, বি, সি এবং কে। আরও আছে মিনারেল-ম্যাংগানিজ, পটাসিয়াম, কপার, মলিবডেনাম। শসার এই ভিটামিন আর ম্যাংগানিজ কাজ করে কার্যকর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে।

- শরীরের বিভিন্ন প্রদাহের বিরুদ্ধে কাজ করে

 

শসা।

- যদিও এখনও গবেষণা পর্যায়ে আছে তাও বিজ্ঞানীরা প্রায় নিশ্চিত যে শসা ব্রেস্ট, ইউটারাস, প্রোস্টেইট, ওভারিয়ান ক্যান্সারের বিরুদ্ধে কার্যকর ভূমিকা রাখে।

 

- হজমে সাহায্য করে।

- ওজন নিয়ন্ত্রণে ভুমিকা রাখে। কারণ এতে থাকে কম ক্যালোরি আর প্রচুর ফাইবার।

- শরীরের খারাপ চর্বি কমিয়ে আনে।

- রোদেপোড়া চামড়ায় শসা লাগালে ক্ষতি কমে এবং আরাম হয়!
0 টি ভোট
করেছেন (1,360 পয়েন্ট)
শসা এবং খেজুর একসাথে খেলে ওজন বাড়বে এই দাবির পক্ষে কোনো বৈজ্ঞানিক প্রমাণ নেই। ওজন বৃদ্ধি বা হ্রাস সাধারণত গ্রাস করা ক্যালোরির সংখ্যা এবং পোড়ানো ক্যালোরির সংখ্যার মধ্যে ভারসাম্যহীনতার ফলাফল। কোন নির্দিষ্ট খাবার বা খাবারের সংমিশ্রণ গ্রহণ করলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ওজন বৃদ্ধি বা হ্রাস হবে না।

শসা এবং খেজুর উভয়ই পুষ্টিকর খাবার যা একটি স্বাস্থ্যকর খাদ্যের অংশ হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে। শসা হাইড্রেশনের একটি ভালো উৎস এবং এতে ভিটামিন কে, ভিটামিন সি এবং পটাসিয়াম সহ বিভিন্ন ধরনের পুষ্টি থাকে। খেজুর মিষ্টির একটি প্রাকৃতিক উৎস এবং এতে ফাইবার, পটাসিয়াম এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সহ বিভিন্ন ধরনের পুষ্টি থাকে।

আপনি যদি ওজন বজায় রাখার বা কমানোর চেষ্টা করছেন, তাহলে সামগ্রিক ক্যালোরির ভারসাম্যের উপর ফোকাস করা এবং আপনি একটি স্বাস্থ্যকর, সুষম খাদ্য গ্রহণ করছেন তা নিশ্চিত করা গুরুত্বপূর্ণ। এর মধ্যে রয়েছে অংশের আকারের প্রতি মনোযোগ দেওয়া, বিভিন্ন পুষ্টি-ঘন খাবার বেছে নেওয়া এবং শারীরিকভাবে সক্রিয় থাকা।
0 টি ভোট
করেছেন (4,150 পয়েন্ট)

শসা

সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর খাদ্য এই রোজায়, গরমে ইফতারে শসা খান আর তরতাজা বোধ করুন। আর এর উপকারিতা জানার পর তো শসার প্রেমেই পড়ে যাবেন!

-  শসায় থাকে প্রচুর পানি। প্রায় শতকরা ৯৬ ভাগ পানিসমৃদ্ধ ১টি শসা আপনাকে দুই গ্লাস সমান পানি সরবরাহ করবে।

- শসায় থাকে প্রচুর ভিটামিন- এ, বি, সি এবং কে। আরও আছে মিনারেল-ম্যাংগানিজ, পটাসিয়াম, কপার, মলিবডেনাম। শসার এই ভিটামিন আর ম্যাংগানিজ কাজ করে কার্যকর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে।

- শরীরের বিভিন্ন প্রদাহের বিরুদ্ধে কাজ করে

শসা।

শসা।

শসা।

- যদিও এখনও গবেষণা পর্যায়ে আছে তাও বিজ্ঞানীরা প্রায় নিশ্চিত যে শসা ব্রেস্ট, ইউটারাস, প্রোস্টেইট, ওভারিয়ান ক্যান্সারের বিরুদ্ধে কার্যকর ভূমিকা রাখে।

- হজমে সাহায্য করে।

- ওজন নিয়ন্ত্রণে ভুমিকা রাখে। কারণ এতে থাকে কম ক্যালোরি আর প্রচুর ফাইবার।

- শরীরের খারাপ চর্বি কমিয়ে আনে।

- রোদেপোড়া চামড়ায় শসা লাগালে ক্ষতি কমে এবং আরাম হয়!

খেজুর

একটি অসাধারণ ফল। পুষ্টিগুনে ভরপুর এই ফল হোক প্রতিদিনের ইফতারের সঙ্গী। জেনে নিন খেজুরের উপকারিতা।

- ডেক্সট্রোজ এবং ফ্রুক্টোজ হল খেজুরের দুই শর্করা। যা অতি দ্রুত আপনাকে শক্তি দেয়।

- সারাদিনের অভুক্ত পাকস্থলী কে তৈরী করে খাবার গ্রহণর জন্য।

- খেজুরে আছে ভিটামিন এ, বি কমপ্লেক্স, সি, কে। ভিটামিন এ, সি এবং কে- কাজ করে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে। ভিটামিন বি কমপ্লেক্স মস্তিষ্ক শক্তিশালি করে। পাশপাশি ত্বক করে সুন্দর।

খেজুর।

খেজুর।

খেজুর।

- এতে কোনো ফ্যাট নেই। শুধু তাই নয়, খেজুর ক্ষতিকর কোলেস্টেরল পরিশোষণ করতেও বাধা দেয়।

- এতে আছে পটাশিয়াম, কপার, আয়রন, সোডিয়াম ইত্যাদি। যা শরীরের লবণ ঠিক রাখে, রক্ত তৈরিতে সাহায্য করে।

- রোজায় খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তনের জন্য কোষ্টকাঠিন্য হতে পারে, খেজুর এর থেকে মুক্তি দেয়।

- খেজুরের আছে অ্যান্টিক্যানসার ও অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি গুন।

- গর্ভাবস্থায় খেজুর খাওয়া খুবই ভালো।

0 টি ভোট
করেছেন (1,010 পয়েন্ট)

খেজুর এবং শসা একসাথে খেলে স্বাস্থ্যের উপকারিতা বৃদ্ধি পায় - এই দাবির পেছনে কিছু বৈজ্ঞানিক ভিত্তি রয়েছে।

খেজুরের পুষ্টিগুণ:

  • খেজুর ফাইবার, ভিটামিন B6, পটাশিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়ামের একটি ভালো উৎস।
  • এতে প্রাকৃতিক চিনি থাকে যা দ্রুত শক্তি সরবরাহ করে।
  • খেজুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ যা কোষের ক্ষতি রোধে সাহায্য করে।

শসার পুষ্টিগুণ:

  • শসা ক্যালোরিতে কম এবং পানিতে সমৃদ্ধ।
  • এতে ভিটামিন K, সি এবং ম্যাগনেসিয়াম থাকে।
  • শসা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ফাইবার সমৃদ্ধ।

স্বাস্থ্য উপকারিতা:

  • হজম উন্নত করতে পারে: খেজুর এবং শসা উভয়ই ফাইবার সমৃদ্ধ যা হজম উন্নত করতে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।
  • রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করতে পারে: খেজুরে পটাশিয়াম থাকে যা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। শসায় পানি এবং ম্যাগনেসিয়াম থাকে যা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা রাখে।
  • শক্তি বৃদ্ধি করতে পারে: খেজুর প্রাকৃতিক চিনির একটি ভালো উৎস যা দ্রুত শক্তি সরবরাহ করে। শসায় পানি এবং ইলেক্ট্রোলাইট থাকে যা শরীরকে হাইড্রেটেড রাখতে এবং শক্তির মাত্রা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।
  • ত্বক ও চুলের জন্য উপকারী: খেজুর এবং শসা উভয়ই অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ যা ত্বক ও চুলের ক্ষতি রোধে সাহায্য করে।

তবে মনে রাখতে হবে:

  • খেজুর এবং শসা একসাথে খাওয়া বাধ্যতামূলক নয়।
  • এগুলি পৃথকভাবে খেলেও একই পুষ্টিগুণ পাওয়া যাবে।
  • যেকোনো খাবার অতিরিক্ত পরিমাণে খাওয়া উচিত নয়।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

+2 টি ভোট
2 টি উত্তর 2,852 বার দেখা হয়েছে
26 ফেব্রুয়ারি 2021 "জীববিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Hojayfa Ahmed (135,470 পয়েন্ট)
+3 টি ভোট
1 উত্তর 382 বার দেখা হয়েছে
06 মে 2021 "রসায়ন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তুষার আহমেদ (470 পয়েন্ট)
+2 টি ভোট
4 টি উত্তর 573 বার দেখা হয়েছে
06 মে 2021 "রসায়ন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তুষার আহমেদ (470 পয়েন্ট)
+2 টি ভোট
2 টি উত্তর 322 বার দেখা হয়েছে
06 মে 2021 "রসায়ন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তুষার আহমেদ (470 পয়েন্ট)
+3 টি ভোট
1 উত্তর 4,157 বার দেখা হয়েছে
06 মে 2021 "রসায়ন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তুষার আহমেদ (470 পয়েন্ট)

10,754 টি প্রশ্ন

18,417 টি উত্তর

4,734 টি মন্তব্য

245,772 জন সদস্য

88 জন অনলাইনে রয়েছে
0 জন সদস্য এবং 88 জন গেস্ট অনলাইনে
  1. shuvosheikh

    350 পয়েন্ট

  2. talal

    150 পয়েন্ট

  3. nahidemon

    110 পয়েন্ট

  4. Soyfa chakma

    110 পয়েন্ট

  5. GusWaring713

    100 পয়েন্ট

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্মুক্ত বিজ্ঞান প্রশ্নোত্তর সাইট সায়েন্স বী QnA তে আপনাকে স্বাগতম। এখানে যে কেউ প্রশ্ন, উত্তর দিতে পারে। উত্তর গ্রহণের ক্ষেত্রে অবশ্যই একাধিক সোর্স যাচাই করে নিবেন। অনেকগুলো, প্রায় ২০০+ এর উপর অনুত্তরিত প্রশ্ন থাকায় নতুন প্রশ্ন না করার এবং অনুত্তরিত প্রশ্ন গুলোর উত্তর দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। প্রতিটি উত্তরের জন্য ৪০ পয়েন্ট, যে সবচেয়ে বেশি উত্তর দিবে সে ২০০ পয়েন্ট বোনাস পাবে।


Science-bee-qna

সর্বাপেক্ষা জনপ্রিয় ট্যাগসমূহ

মানুষ পানি ঘুম পদার্থ - জীববিজ্ঞান এইচএসসি-উদ্ভিদবিজ্ঞান এইচএসসি-প্রাণীবিজ্ঞান পৃথিবী চোখ রোগ রাসায়নিক শরীর রক্ত আলো #ask মোবাইল ক্ষতি চুল কী চিকিৎসা পদার্থবিজ্ঞান সূর্য #science প্রযুক্তি স্বাস্থ্য প্রাণী গণিত বৈজ্ঞানিক মাথা মহাকাশ পার্থক্য এইচএসসি-আইসিটি #biology বিজ্ঞান খাওয়া গরম শীতকাল #জানতে কেন ডিম চাঁদ বৃষ্টি কারণ কাজ বিদ্যুৎ রাত রং উপকারিতা শক্তি লাল আগুন সাপ মনোবিজ্ঞান গাছ খাবার সাদা আবিষ্কার দুধ উপায় হাত মশা মাছ ঠাণ্ডা মস্তিষ্ক শব্দ ব্যাথা ভয় বাতাস স্বপ্ন তাপমাত্রা গ্রহ রসায়ন উদ্ভিদ কালো পা কি বিস্তারিত রঙ মন পাখি গ্যাস সমস্যা মেয়ে বৈশিষ্ট্য হলুদ বাচ্চা সময় ব্যথা মৃত্যু চার্জ অক্সিজেন ভাইরাস আকাশ গতি দাঁত আম হরমোন বাংলাদেশ বিড়াল
...