দুধ খেয়ে আনারস খেলে কি মানুষ মারা যায়? - ScienceBee Q&A
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রশ্নোত্তর দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম! প্রশ্ন অথবা উত্তর দিয়ে জিতে নিন পুরস্কার, নিয়মাবলি দেখে নিন।
x
+4 টি ভোট
1.4k বার দেখা হয়েছে
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন (33.7k পয়েন্ট)
পূনঃরায় খোলা করেছেন

4 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (81.5k পয়েন্ট)
 
সর্বোত্তম উত্তর
Shafiqul Islam EK-

আনারস ও দুধ নিয়মমাফিক ও সঠিক খাদ্যের সমন্বয়ে খান।

আনারস খুব উপাদেয় ফল। এর মধ্যে রয়েছে ভিটামিন এ এবং সি। রয়েছে ক্যালসিয়াম,পটাশিয়াম ও ফসফরাস। আর দুধকে আমরা সুষম খাদ্য হিসেবে বিবেচনা করি। তবে আনারস আর দুধ একসঙ্গে খেলে মানুষ বিষক্রিয়া হয়ে মারা যায়-এ রকম একটি ধারণা প্রচলিত আছে। বাড়ির বয়োজ্যেষ্ঠরা অনেক সময় ছোটদের এ খাবার একসঙ্গে খেতে নিষেধ করেন। তবে আসলেই কি এ রকম হয়? আসুন জেনে নিই আসলে কী হয় আনারস আর দুধ একসঙ্গে খেলে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগের ডিন অধ্যাপক ডা. এ বি এম আবদুল্লাহ বলেন, ‘আনারস ও দুধ একসঙ্গে খেলে বিষক্রিয়া হয়ে কেউ মারা যায় এই ধারণা ভুল। এগুলো এক ধরনের ফুড ট্যাবু বা খাদ্য কুসংস্কার।’

অধ্যাপক আবদুল্লাহ বিষয়টি ব্যাখ্যা করে বলেন, ‘আনারস একটি এসিডিক এবং টকজাতীয় ফল। দুধের মধ্যে যেকোনো টকজাতীয় জিনিস দিলে দুধ ছানা হয়ে যেতে পারে বা ফেটে যেতে পারে। এটা কমলা ও দুধের বেলায় বা লেবু ও দুধের বেলাতেও ঘটে। ফেটে যাওয়া দুধ খেলে খুব বেশি হলে বদ হজম, পেট ফাঁপা, পেট খারাপ– এ ধরনের সমস্যা হতে পারে, তবে বিষক্রিয়ার কোনো আশঙ্কা নেই। যাদের গ্যাসট্রিকের সমস্যা রয়েছে, খালি পেটে আনারস খেলে তাদের এই সমস্যা বেড়ে যেতে পারে।’

একই বিষয়ে কথা হয় হলি ফ্যামিলি মেডিকেল কলেজের রেজিস্ট্রার ও মেডিসিন বিভাগ ডা. শ আ মোনেমের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘এমন কখনো দেখিনি যে দুধ-আনারস একসঙ্গে খেয়ে মানুষ মারা গেছে। এটা একটা কুসংস্কার। আমরা তো অনেক সময় ডেজার্ট, কাস্টার্ড বা স্মুদিতে আনারস-দুধ একত্রে মিশিয়ে খাই। এগুলো খেলে তো কোনো সমস্যা হয় না।’

অ্যাপোলো হাসপাতালের প্রধান পুষ্টিবিদ তামান্না চৌধুরী বলেন, ‘আনারস একটি এসিডিক খাবার। আর দুধ হলো অ্যালকালাইন বা ক্ষার। দুধ যদি পাস্তুরিত না হয়, তবে কাঁচা দুধ ও আনারসের সমন্বয়ে শরীরে বিক্রিয়া হতে পারে। দুধের সঙ্গে আনারসের সঠিক সমন্বয় না হলে শারীরিক সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা আছে। এ ক্ষেত্রে অন্যান্য খাবারের বেলাতেও একই বিষয় হতে পারে।’

তামান্ন চৌধুরী আরো যোগ করেন, ‘আমরা বিভিন্ন সময়ই পাইনা অ্যাপেল কাস্টার্ড, ডেজার্ট, পাইন অ্যাপেল স্মুদি, পাইন অ্যাপেল মিল্ক সেক, পাইন অ্যাপেল সালাদ, পাইন অ্যাপেল ইয়োগার্ট ইত্যাদি খাই। এতে সমস্যা হয় না। কারণ এগুলোর মধ্যে খাদ্যের সঠিক সমন্বয় থাকে এবং নিয়মমাফিক বা সঠিক নিয়মে বানানো হয়। আর হয়তো এক গ্লাস দুধ খেলেন, পাশাপাশি আনারস খেয়ে নিলেন তাহলে সঠিক খাদ্যের সমন্বয় হয় না। এ ক্ষেত্রে সঠিক সমন্বয় না হওয়ার ফলে পাতলা পায়খানা, বদ হজম, এসিডিটি ইত্যাদি সমস্যা হতে পারে। তবে বিষক্রিয়া হয়ে মৃত্যু হওয়ার আশঙ্কা নেই।’

তবে ডা. এ বি এম আবদুল্লাহ সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ‘আনারস আর দুধ বিরতি দিয়ে খাওয়াই ভালো। দুই থেকে তিন ঘণ্টা বিরতি দিয়ে খাওয়া যেতে পারে। নয়তো অনেক সময় পেটে গিয়ে হজমের সমস্যা হতে পারে। তবে যদি সঠিক নিয়মে খাবার বানানো হয় এবং সঠিক খাদ্যের সমন্বয় থাকে তাহলে কোনো সমস্যা হবে না। দুধ ফুটিয়ে নিলে বা প্রসেস করে নিলে টক্সিটিক বিষয়টি আর থাকে না, তখন খাওয়া যেতে পারে। তাই আনারস-দুধ সঠিক নিয়মে এবং সঠিক খাদ্যের সমন্বয়ে খাওয়া যেতে পারে।’
+1 টি ভোট
করেছেন (33.7k পয়েন্ট)

দুধ খাওয়ার পর আনারস অথবা অানারস খাওয়ার পর দুধ খেলে মরে যাবো - আমাদের দেশে প্রচলিত ভুল ধারণাগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম। অনেকে তো আনারস খাওয়ার পর Milk Chocolate খেতেও রীতিমতো ভয় পেয়ে যায় 
সাধারণত বলা হয়ে থাকে আনারস ও দুধ একসাথে বিষক্রিয়া করে এবং মানুষ মারাও যেতে পারে। কিন্তু পরীক্ষার মাধ্যমে এটি ভুল প্রমাণিত হয়েছে। মূলত আনারস অম্লীয় ফল, যা দুধের সাথে মেশালে দুধের কোয়াগুলেশন নষ্ট হয়ে দুধ ফেটে যায়। এ ঘটনা যদি পেটের মধ্যে ঘটে বড়জোর পেট ব্যাথা হতে পারে।

কিছু কিছু জায়গায় "পাইন্যাপেল মিল্কশেক" পাওয়া যায়। টেস্ট করে দেখতে পারে!

+2 টি ভোট
করেছেন (33.7k পয়েন্ট)

Muhammad Tanvir দুধ খেয়ে আনারস খেলে অথবা আনারস খেয়ে দুধ খেলে যেভাবেই বলি না কেন মূলত এটাকে বলা হয় ফুড ট্যাবু বা খাদ্য কুসংস্কার..যা আমাদের দেশের মানুষের মাঝে খুব ভালো ভাবেই চেপে বসে আছে(আমি ও ব্যতিক্রম নই,আমার ও আগে এরকম ধারণা ছিলো)..মূলত পেটের ভিতরে বিষক্রিয়া সৃষ্টি হয় নাহ কিন্তুু কিছু পাকস্থলীয় সমস্যা দেখা দেয় বদহজম,পেটফাঁপা,পেটখারাপ..যাদের গ্যাস্ট্রিক এর সমস্যা তাদের ক্ষেত্র ব্যাপারগুলো আরেকটু তীব্র.আর যাদের গ্যাস্ট্রিক এর প্রবলেম তাদের খালি আনারস না টক জাতীয় কিছু খেলেই সমস্যা হয়...আর খাদ্যের সমন্বয় বলে একটা ব্যাপার আছে আসলে আমরা অনেকেই দুধ-আনারস মিক্সড অনেক কিছুই খেয়েছি যেমন-পাইনঅ্যাপল মিল্কস্যাক,পাইনঅ্যাপল কাস্টার্ড আরও বিভিন্ন ডেজার্ট..বাট এতে সমস্যা না হওয়ার প্রধাণ কারণ হচ্ছে এতে পাইনঅ্যাপল আর দুধের সমন্বয়টা বেশ ভালো হয়েছে..আনারস একটু অ্যাসিডিক আর টক জাতীয় ফল বিধায় পেটের কিছু সমস্যা আর এমনিতে ও দুধের মধ্যে টক দিলে তা ছানা হয়ে যায় বা ফেটে যায় আর থেকেই মূলত পাকস্থলীয় পীড়া..তাই দুধ ও আনারস একসঙ্গে না খেয়ে দুই-তিন ঘন্টা বিরতি দিয়ে খান যাতে স্বাস্থ্য ঠিক থাকে...আর এসব কুসংস্কার আমরা বর্জন করে বিজ্ঞানের কষ্টিপাথর দিয়ে ব্যাপারগুলা যাচাই করি..তাহলেই ইন শা আল্লাহ জানতে পারবো ।

করেছেন
জাযাকাল্লাহ
+1 টি ভোট
করেছেন (9.6k পয়েন্ট)

Afsana Afrin-

আনারস ও দুধ একসঙ্গে খেলে বিষক্রিয়া হয়ে কেউ মারা যায় এই ধারণা ভুল। এগুলো এক ধরনের ফুড ট্যাবু বা খাদ্য কুসংস্কার।

আনারস একটি এসিডিক এবং টকজাতীয় ফল। দুধের মধ্যে যেকোনো টকজাতীয় জিনিস দিলে দুধ ছানা হয়ে যেতে পারে বা ফেটে যেতে পারে। এটা কমলা ও দুধের বেলায় বা লেবু ও দুধের বেলাতেও ঘটে। ফেটে যাওয়া দুধ খেলে খুব বেশি হলে বদ হজম, পেট ফাঁপা, পেট খারাপ– এ ধরনের সমস্যা হতে পারে, তবে বিষক্রিয়ার কোনো আশঙ্কা নেই। যাদের গ্যাসট্রিকের সমস্যা রয়েছে, খালি পেটে আনারস খেলে তাদের এই সমস্যা বেড়ে যেতে পারে।

আমরা তো অনেক সময় ডেজার্ট, কাস্টার্ড বা স্মুদিতে আনারস-দুধ একত্রে মিশিয়ে খাই। এগুলো খেলে তো কোনো সমস্যা হয় না।

আনারস একটি এসিডিক খাবার। আর দুধ হলো অ্যালকালাইন বা ক্ষার। দুধ যদি পাস্তুরিত না হয়, তবে কাঁচা দুধ ও আনারসের সমন্বয়ে শরীরে বিক্রিয়া হতে পারে। দুধের সঙ্গে আনারসের সঠিক সমন্বয় না হলে শারীরিক সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা আছে। এ ক্ষেত্রে অন্যান্য খাবারের বেলাতেও একই বিষয় হতে পারে।’

এ ক্ষেত্রে সঠিক সমন্বয় না হওয়ার ফলে পাতলা পায়খানা, বদ হজম, এসিডিটি ইত্যাদি সমস্যা হতে পারে। তবে বিষক্রিয়া হয়ে মৃত্যু হওয়ার আশঙ্কা নেই।

2.2k টি প্রশ্ন

2.2k টি উত্তর

4.0k টি মন্তব্য

40.1k জন সদস্য

31 জন অনলাইনে রয়েছে
0 জন সদস্য এবং 31 জন গেস্ট অনলাইনে
  1. বিজ্ঞানের পোকা ৫

    2200 পয়েন্ট

  2. Arpa

    1060 পয়েন্ট

  3. Fabia Reyan

    180 পয়েন্ট

  4. Audrita Roy

    170 পয়েন্ট

  5. AltonFifield

    100 পয়েন্ট

মাসিক গিফট
১ম স্থান: ১০০ টাকা
২য় স্থান : ৭০ টাকা
৩য় স্থান: ৫০ টাকা

Welcome to Sciencebee Q&A, where you can ask questions and receive answers from other members of the community.
...