মেয়েদের ভয়েস এত কিউট বা নরম হয় কেনো? - ScienceBee Q&A

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রশ্নোত্তর দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম! প্রশ্ন অথবা উত্তর দিয়ে জিতে নিন পুরস্কার, বিস্তারিত এখানে দেখুন।

+8 টি ভোট
182 বার দেখা হয়েছে
"জীববিজ্ঞান" বিভাগে করেছেন (121k পয়েন্ট)

3 উত্তর

+1 টি ভোট
করেছেন (121k পয়েন্ট)
 
সর্বোত্তম উত্তর

Samsun Nahar Priya-

মানুষের গলার স্বরযন্ত্রে দুইটি পর্দা আছে এদেরকে বলে ভোকাল কর্ড।এটির কম্পনের ফলে গলা থেকে শব্দ নির্গত হয় এবং যার ফলে মানুষ কথা বলতে পারে। পুরুষদের ভোকাল কর্ড দৃঢ় থাকে কিন্তু মেয়েদের ভোকাল কর্ড দৃঢ় থাকে না। মেয়েদের ভোকাল কর্ড দৃঢ় না থাকায় তাদের গলার স্বরের কম্পাংক বা ফ্রিকোয়েন্সী বেশি হয়ে থাকে। তাই মেয়েদের কন্ঠস্বর চিকন বা তীক্ষ্ম থাকে।

+1 টি ভোট
করেছেন (121k পয়েন্ট)
Tilottama Paul-

ভোকাল কর্ডের কম্পনের ফলে গলা থেকে শব্দ নির্গত হয় এবং মানুষ কথা বলে। বয়স্ক পুরুষদের ভোকাল কর্ড বয়সের সঙ্গে সঙ্গে দৃঢ় হয়। কিন্তু শিমু বা নারীদের ভোকাল কর্ড দৃঢ় থাকে না, ফলে বয়স্ক পুরুষদের গলার স্বরের কম্পাঙ্ক কম এবং নারী বা শিশুদের স্বরের কম্পাঙ্ক বেশি হয়। তাই পুরুষদের গলার স্বর মোটা কিন্তু শিশু বা নারীদের কন্ঠস্বর নরম
0 টি ভোট
করেছেন (104k পয়েন্ট)

সাধারণত আমরা বেশিরভাগ মেয়ের ক্ষেত্রেই দেখি ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের গলার স্বর মিষ্টি, সুরেলা ও চিকন হয়ে থাকে। যা ছেলেদের কণ্ঠে আমরা সম্পূর্ণ ভিন্ন রকম শুনি। ছোট ছেলেমেয়েদের গলার স্বরে কোনো তফাত সাধারণত বোঝা যায় না। বয়ঃসন্ধির সময় থেকে ছেলেদের গলার স্বর ভারি, গম্ভীর হতে থাকে। প্রথমে গলার স্বর ভাঙে, পার আস্তে আস্তে গভীর, তারপর গম্ভীর হয়ে যায়।

মেয়েদের গলার স্বর কিন্তু বেশি পাল্টায় না। কিন্তু ছেলেদের স্বর পাল্টায় কেন? আমরা স্বরযন্ত্রের সাহায্যে কথা বলি। স্বরযন্ত্রের মধ্যে আছে স্বরপর্দা, এদের কম্পনের ফলে বায়ু তরঙ্গের সৃষ্টি হয়। এই বায়ু তরঙ্গই শব্দ বা স্বরের সৃষ্টি করে। কণ্ঠস্বরের মিষ্টতা, শব্দের এক বিশেষ ধর্মের ওপর নির্ভরশীল, একে বলে তীক্ষ্নতা। তীক্ষ্নতা আবার নির্ভর করে শব্দ কম্পনের ওপর। বয়ঃসন্ধির সময়ে ছেলেদের শরীরে এক বিশেষ ধরনের হরমোন বেরোয় যার নাম অ্যান্ড্রোজন।

সব পুরুষালি বৈশিষ্ট্য যেমন-দাড়ি, গোঁফ গজানো, গলার স্বর ভারি হওয়ার জন্য এই হরমোনই দায়ী। এগ্রোজেন ছেলেদের স্বরযন্ত্রের আয়তন বাড়ায় এবং স্বরপর্দাকে অনেক পুরো আর দীর্ঘ করে। ফলে তাদের কম্পাঙ্ক অনেক কম হয়। ছেলেদের স্বাভাবিক কথাবার্তার সময়ে কম্পাঙ্ক সেকেন্ডে ১২০ বার যেখানে মেয়েদের কম্পাঙ্কের সংখ্যা ২৫০।

তাই মেয়েদের গলার স্বরের তীক্ষ্নতা বেশি। অ্যান্ড্রোজেনের প্রভাবেই ছেলেদের গলার স্বর গভীর এবং গম্ভীর শোনায়। মেয়েদের দেহে এই হরমোনের প্রভাব অনেক কম থাকায় তাদের স্বরযন্ত্রের আকার ও গঠন পাল্টায় না। আর কণ্ঠস্বরের কম্পাঙ্ক ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের বেশি হয় বলে তাদের গলা মিষ্টি শোনায়।

ক্রেডিট: Amiopari

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

+10 টি ভোট
1 উত্তর 239 বার দেখা হয়েছে
+15 টি ভোট
1 উত্তর 374 বার দেখা হয়েছে
+21 টি ভোট
1 উত্তর 579 বার দেখা হয়েছে
0 টি ভোট
1 উত্তর 52 বার দেখা হয়েছে
+5 টি ভোট
1 উত্তর 46 বার দেখা হয়েছে
27 জানুয়ারি "বিবিধ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Samsun Nahar Priya (46.3k পয়েন্ট)

5.7k টি প্রশ্ন

6.7k টি উত্তর

4.2k টি মন্তব্য

47.2k জন সদস্য

71 জন অনলাইনে রয়েছে
1 জন সদস্য এবং 70 জন গেস্ট অনলাইনে
  1. Rakib Hasan Shrabon

    1150 পয়েন্ট

  2. Martian

    1050 পয়েন্ট

  3. Musfiqur Rhaman Adib

    1010 পয়েন্ট

  4. মেহেদী হাসান

    900 পয়েন্ট

  5. Nusaiba Nahia Tiasha

    600 পয়েন্ট

মাসিক গিফট
১ম স্থান: ১০০ টাকা
২য় স্থান : ৭০ টাকা
৩য় স্থান: ৫০ টাকা

সাইন্স বী QnA তে আপনাকে স্বাগতম। অনেকগুলো, প্রায় ২০০+ এর উপর অনুত্তরিত প্রশ্ন থাকায় নতুন প্রশ্ন না করার এবং অনুত্তরিত প্রশ্ন গুলোর উত্তর দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। প্রতিটি উত্তরের জন্য ৪০ পয়েন্ট, যে সবচেয়ে বেশি উত্তর দিবে সে ২০০ পয়েন্ট বোনাস পাবে।


Science-bee-qna

সর্বাপেক্ষা জনপ্রিয় ট্যাগসমূহ

মানুষ পানি ঘুম এইচএসসি-উদ্ভিদবিজ্ঞান চোখ এইচএসসি-প্রাণীবিজ্ঞান মোবাইল জীববিজ্ঞান ক্ষতি শরীর রক্ত চুল পৃথিবী মাথা শীতকাল আলো - বৈজ্ঞানিক সাপ প্রাণী কারণ রোগ কী উপকারিতা খাবার ডিম হাত বৃষ্টি ভয় গরম চিকিৎসা খাওয়া বিদ্যুৎ পার্থক্য মহাকাশ রং কাজ ব্যাথা #biology রাত মশা এইচএসসি-আইসিটি মনোবিজ্ঞান পা কেন #ask সাদা গাছ গণিত দুধ মেয়ে আগুন উপায় ফোবিয়া বাতাস ঠাণ্ডা নখ পদার্থবিজ্ঞান বিড়াল মাছ উদ্ভিদ গ্রহ দাঁত লাল #জানতে পাতা চাঁদ শক্তি বাচ্চা প্রযুক্তি নাক স্বপ্ন রঙ সূর্য চার্জ ত্বক শব্দ কান্না স্বাস্থ্য পাখি গুগল রাগ ফল অতিরিক্ত হলুদ সমস্যা বিষ মন বেশি দেখা ফুল মুরগি body বিস্তারিত চা কুকুর হরমোন কালো বৈশিষ্ট্য ডিএনএ
...