অতিরিক্ত ঘামের সমস্যা দূর করবে এই ৬ খাবার - ScienceBee প্রশ্নোত্তর

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রশ্নোত্তর দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম! প্রশ্ন-উত্তর দিয়ে জিতে নিন পুরস্কার, বিস্তারিত এখানে দেখুন।

+1 টি ভোট
1,436 বার দেখা হয়েছে
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন (350 পয়েন্ট)

শরীরে অতিরিক্ত ঘাম তৈরি হওয়া যেমন কোনো ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হতে পারে, শরীরে উপস্থিত অন্য কোনো রোগের কারণে হতে পারে আবার তেমনি কোনো কারণ ছাড়াও এই উপসর্গ দেখা দিতে পারে। প্রথমে কাদের এবং কেন ঘাম বেশি হয় সেগুলো জেনে নেওয়া যাক।

১. যাদের ডায়াবেটিস আছে।

২. মেনোপজে আছেন যারা।

৩. কোনো ধরনের ইনফেকশন থাকলে।

৪. ব্লাড সুগার কম হলে।

৫. থাইরয়েডের সমস্যা থাকলে।

৬. লিউকেমিয়া থাকলে।

৭. কিছু ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

৮. দুশ্চিন্তা, হতাশা।

৯. পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন না থাকা।

অতিরিক্ত ঘাম হওয়া যেমন শরীরের জন্য ক্ষতিকর, তেমনি বিব্রতকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করে। তবে এ থেকে মুক্তিরও উপায় আছে। কয়েকটি খাবার আপনার খাদ্য তালিকায় রাখার মাধম্যে উপকৃত হতে পারেন।

১.পানি

পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করলে আপনার শরীর ঠাণ্ডা ও হাইড্রেট থাকবে। আর শরীর হাইড্রেট থাকলে অতিরিক্ত ঘাম হওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

২.উচ্চ ফাইবারযুক্ত খাবার

উচ্চ ফাইবারযুক্ত খাবার যেমন ওটস ও শস্যাজাতীয় খাবার হজম ভালো রাখে। আর হজম ঠিকমতো হলে শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে এবং অত্যধিক ঘাম হয় না।

৩.ফল

অনেক ফল যেমন- আপেল, আঙুর, তরমুজ, আনারস, কমলায় পানি থাকে, তা ঘাম কম হতে সাহায্য করে। আর এ ফলগুলো খেলে সাধারণত শরীরে বাজে গন্ধ তৈরি হয় না।

৪.সবজি

আপনার খাদ্যতালিকায় শসা, লেটুস, লাল বাঁধাকপি রাখুন, যাতে যথেষ্ট পরিমাণ পানি রয়েছে এবং এগুলো ওজন কমাতে সাহায্য করে।

৫.গ্রিন টি

গ্রিন টি অ্যান্টি-অক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ এবং এর একটি প্রভাব রয়েছে, যা স্নায়ুতন্ত্রকে ঠাণ্ডারাখতে এবং ঘাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে।

৬.অলিভ অয়েল

রান্নার কাজে অলিভ অয়েলের ব্যবহার মেটাবলিজম বাড়িয়ে হজম ভালো রাখে। অলিভ অয়েলে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকে, যা তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে এবং ঘাম কম হয়।

 

ক্যাফেইন জাতীয় পানীয় এবং অ্যালকোহল থেকে নিজেকে দূরে রাখুন। 

 

সূত্র: হেলথ শটস।

 

 

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (43,930 পয়েন্ট)
গরম আবহাওয়ায় শরীর থেকে ঘাম ঝরা স্বাভাবিক বিষয়। আর এ কারণে এ বিষয়টি নিয়ে তেমন কেউ মাথায় মাথা ঘামায় না। ঘামের সঙ্গে শরীরের দূষিত পদার্থ বের হয়ে যায়। আর ঘাম হলে শরীরের অতিরিক্ত পানি ও লবণ বেরিয়ে যায়। ফলে শরীরের তাপমাত্রা নেমে যায়।

তবে অনেকেরই অতিরিক্ত ঘামের সমস্যা থাকে। বিষয়টি শারীরিক বিভিন্ন রোগের লক্ষণ হতে পারে। আবার অনেকের মুখ ও শরীরের তুলনায় হাতের তালু এবং পায়ের পাতায় ঘাম বেশি হয়। একে হাইপার হাইড্রোসিস বলে।

স্বাভাবিক মাত্রায় ঘাম সবারই হয়ে থাকে। ঘাম শরীরের অত্যাবশ্যকীয় একটি প্রক্রিয়া। বরং ঘাম না হওয়াও কখনো বড় ধরনের অসুস্থতার লক্ষণ।

তাই অতিরিক্ত ঘামও যেমন শারীরিক কিছু রোগের লক্ষণ আবার না ঘামলেও শরীরে থাকতে পারে নানা অসুখ। আর গরম ছাড়াই যদি আপনি ঘামেন তাহলেও তা কিন্তু বড়সড় রোগের লক্ষণ।

অতিরিক্ত ঘাম হওয়ার কারণ

>> কেউ অতিরিক্ত ব্যায়াম করলে, নার্ভাস হলে কিংবা রোদে গেলে অতিরিক্ত ঘাম হতে পারে

>> পরীক্ষার সময় অতিরিক্ত মানসিক চাপ থেকেও বেশি ঘাম হতে পারে।

>> মশলাযুক্ত বা ঝাল বা তৈলাক্ত খাবার অতিরিক্ত খেলেও বেশি ঘাম হতে পারে।

>> আয়োডিনযুক্ত খাবার যেমন- ব্রোকোলি, পেঁয়াজ, খাবারে অতিরিক্ত লবণ খেলেও ঘাম বেশি হতে পারে।

>> শারীরিক দুর্বলতা থেকেও ঘাম বেশি হয়।

>> পাউডার ব্যবহার থেকেও ঘাম দূর করার পরিবর্তে তা আরও বাড়িয়ে দেয়।

> অতিরিক্ত ধূমপানও ঘামের কারণ হতে পাতে।

অতিরিক্ত ঘামলে করণীয়

>> ঘামের সঙ্গে যেহেতু সোডিয়াম, পটাশিয়াম, বাইকার্বোনেট বেরিয়ে শরীর দুর্বল ও অস্থির হয়ে যায় তাই পানির সঙ্গে লবণ ও লেবু মিশিয়ে শরবত খেলে ভালো হয়।

>> গরমে দইয়ের ঘোল ও ডাব খেতে পারেন।

>> কোল্ড ড্রিংকসের পরিবর্তে টাটকা ফলের রস খান।

>> ভিটামিন বি-১২-এর অভাবে যেহেতু হাইপার হাইড্রোসিস হয়; তাই বি-কমপ্লেক্স যুক্ত খাবার খান।

>> একবার রক্ত পরীক্ষা করে দেখে নিন, থাইরয়েড হয়েছে কি-না।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

+8 টি ভোট
2 টি উত্তর 1,162 বার দেখা হয়েছে
+9 টি ভোট
1 উত্তর 287 বার দেখা হয়েছে
+15 টি ভোট
2 টি উত্তর 1,533 বার দেখা হয়েছে
0 টি ভোট
1 উত্তর 849 বার দেখা হয়েছে
27 ফেব্রুয়ারি 2021 "বিবিধ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Hojayfa Ahmed (135,470 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর 403 বার দেখা হয়েছে

10,754 টি প্রশ্ন

18,417 টি উত্তর

4,734 টি মন্তব্য

245,770 জন সদস্য

187 জন অনলাইনে রয়েছে
0 জন সদস্য এবং 187 জন গেস্ট অনলাইনে
  1. shuvosheikh

    350 পয়েন্ট

  2. talal

    150 পয়েন্ট

  3. nahidemon

    110 পয়েন্ট

  4. Soyfa chakma

    110 পয়েন্ট

  5. EffieHolyfie

    100 পয়েন্ট

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্মুক্ত বিজ্ঞান প্রশ্নোত্তর সাইট সায়েন্স বী QnA তে আপনাকে স্বাগতম। এখানে যে কেউ প্রশ্ন, উত্তর দিতে পারে। উত্তর গ্রহণের ক্ষেত্রে অবশ্যই একাধিক সোর্স যাচাই করে নিবেন। অনেকগুলো, প্রায় ২০০+ এর উপর অনুত্তরিত প্রশ্ন থাকায় নতুন প্রশ্ন না করার এবং অনুত্তরিত প্রশ্ন গুলোর উত্তর দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। প্রতিটি উত্তরের জন্য ৪০ পয়েন্ট, যে সবচেয়ে বেশি উত্তর দিবে সে ২০০ পয়েন্ট বোনাস পাবে।


Science-bee-qna

সর্বাপেক্ষা জনপ্রিয় ট্যাগসমূহ

মানুষ পানি ঘুম পদার্থ - জীববিজ্ঞান এইচএসসি-উদ্ভিদবিজ্ঞান এইচএসসি-প্রাণীবিজ্ঞান পৃথিবী চোখ রোগ রাসায়নিক শরীর রক্ত আলো #ask মোবাইল ক্ষতি চুল কী চিকিৎসা পদার্থবিজ্ঞান সূর্য #science প্রযুক্তি স্বাস্থ্য প্রাণী গণিত বৈজ্ঞানিক মাথা মহাকাশ পার্থক্য এইচএসসি-আইসিটি #biology বিজ্ঞান খাওয়া গরম শীতকাল #জানতে কেন ডিম চাঁদ বৃষ্টি কারণ কাজ বিদ্যুৎ রাত রং উপকারিতা শক্তি লাল আগুন সাপ মনোবিজ্ঞান গাছ খাবার সাদা আবিষ্কার দুধ উপায় হাত মশা মাছ ঠাণ্ডা মস্তিষ্ক শব্দ ব্যাথা ভয় বাতাস স্বপ্ন তাপমাত্রা গ্রহ রসায়ন উদ্ভিদ কালো পা কি বিস্তারিত রঙ মন পাখি গ্যাস সমস্যা মেয়ে বৈশিষ্ট্য হলুদ বাচ্চা সময় ব্যথা মৃত্যু চার্জ অক্সিজেন ভাইরাস আকাশ গতি দাঁত আম হরমোন বাংলাদেশ বিড়াল
...