কী হবে যদি ৫ সেকেন্ডের জন্য পৃথিবীতে অক্সিজেন সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়?

বায়ুমন্ডলে বিদ্যমান গ্যাসগুলোর মধ্যে অক্সিজেনের পরিমাণ সবচেয়ে বেশি না হলেও এর গুরুত্ব অনস্বীকার্য।তুমি কি কখনো ভেবে দেখেছ পৃথিবীতে যদি পাঁচ সেকেন্ডের জন্য অক্সিজেনের সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হয় তাহলে কি হতে পারে?তোমার হয়ত মনে হতে পারে এক মিনিট শ্বাস বন্ধ করে রাখা যায়, ৫ সেকেন্ড এ আর এমন কি?
কিন্তু বাস্তবতা হল,এমনটা হলে এর ফলাফল পুরো বিশ্বের জন্য হতে পারে বিপজ্জনক।

১.দিনের বেলায় আকাশ কালো হয়ে যাবে


বায়ুমন্ডলের বিভিন্ন গ্যাসের কণার ( ধুলোবালি, অক্সিজেন অণু ইত্যাদি)  সাথে ক্রিয়া করার ফলে সূর্য থেকে আলো পৃথিবীতে এসে পৌঁছে।অক্সিজেনের অনুপস্থিতি মানে বায়ুমন্ডলে কম আলো প্রতিফলিত হবে,ফলে দিনের বেলা আকাশ দেখা যাবে অন্ধকার বা কালো।

২.পৃথিবীর উপরিভাগ /ভূপৃষ্ঠ চৌচির হয়ে যাবে


পৃথিবীর কঠিন ভূত্বকের ৪৫℅ অক্সিজেন দ্বারা গঠিত।সুতরাং অক্সিজেন ছাড়া এই কঠিন ভূত্বক থাকবে না এবং ধুলোবালিতে পরিণত হবে।

৩.ঘরের বাইরে থাকা প্রত্যেকে সূর্যতাপে পুড়তে শুরু করবে

The chemical composition of ozone consists of 3 oxygen molecules


ওজোন গ্যাস তিনটি অক্সিজেন অণু দ্বারা গঠিত।এই ওজোন গ্যাসই অতিবেগুনী রশ্মিকে পৃথিবীর ট্রপোমণ্ডলে ঢুকতে বাধা প্রদান করে।অক্সিজেন না থাকলে ওজোন গ্যাস ও থাকবে না।ফলাফল – মনে হবে যেন আমরা  গরম টোস্টারের ভেতর বসবাস করছি।

৪.প্রত্যেকের কানের ভেতর বিস্ফোরণ হয়ে ফেটে যাবে

Barotrauma occurs when sudden changes in pressure take place


অক্সিজেন ব্যতীত আমরা ২১ শতাংশ পর্যন্ত বায়ুচাপ হারিয়ে ফেলব- যা অনেকটা হঠাৎ করেই সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ২০০ মিটার ওপর পর্যন্ত লাফ দেয়ার সমান।কানের ভিতর ও বাইরের বাতাসের চাপের অসমতার জন্য শ্রবণশক্তি কমে যাবে এমনকি ফেটে যেতে পারে।

৫.অন্তর্নিহিত দহনচালিত সকল যান সাথে সাথে বন্ধ হয়ে যাবে

-প্রতীকী ছবি


ইঞ্জিনে দহন প্রক্রিয়ায় চলমান যানবাহনগুলো অকেজো হয়ে পড়বে। যেহেতু দহন প্রক্রিয়ার জন্য অক্সিজেন প্রয়োজন,সেহেতু ইলেক্ট্রিক গাড়ি ব্যতীত সব যানবাহনই অচল হয়ে পড়বে।আমরা দেখব প্লেন,উড়োজাহাজ এমনকি স্পেস শাটল ও আকাশ থেকে নিচে পড়ে যাচ্ছে।

৬.কনক্রিট/সিমেন্টের তৈরি সকল বাড়িঘর ধুলোয় মিশে যাবে

Picture-What IF


কংক্রিটের যেকোনো গঠন ভেঙে পড়বে। অক্সিজেন এদের ক্ষেত্রে বন্ধনী হিসেবে কাজ করে,ফলে অক্সিজেন ব্যতীত এদের দৃঢ়তা নষ্ট হয়ে পড়বে।

৭.সমুদ্র ও অন্যান্য উৎসের পানি বাষ্পীভূত হয়ে উড়ে যাবে


পানি মূলত অক্সিজেন ও হাইড্রোজেন পরমাণু দিয়ে গঠিত। ৩৩.৩৩% অক্সিজেন যদি নাই হয়ে যায় তাহলে সব পানি সবচেয়ে হালকা পরমাণু হাইড্রোজেন হিসেবে বাষ্পীভূত হয়ে উপরে চলে যাবে। 

ট্যাগ:

কমেন্ট করুন...