অল্প বয়সে চুল পেকে যায় কেন? আর চুল পাকলে কী করা উচিত? - ScienceBee Q&A
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রশ্নোত্তর দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম! প্রশ্ন অথবা উত্তর দিয়ে জিতে নিন পুরস্কার, নিয়মাবলি দেখে নিন।
x
+1 টি ভোট
218 বার দেখা হয়েছে
"তত্ত্ব ও গবেষণা" বিভাগে করেছেন (26.6k পয়েন্ট)

2 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (26.6k পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর

Mohammed Mashum Billah Munna ঝলমলে সুন্দর কালো চুল আপনার বাহ্যিক সৌন্দর্যকে বাড়িয়ে তোলে। কিন্তু কম বয়সে পাকা চুল আপনাকে বাড়তি সমস্যায় ফেলতে পারে। মাথাভর্তি চুলে হুট করেই দুই একটা পাকা চুল নজরে আসতে পারে! এই পাকা চুল দেখে আপনার চোখ কপালে উঠতে পারে। এই সময় দুশ্চিন্তায় ঘুম হারাম। এত কম বয়সে চুল পাকাটা হয়তো বংশগত। অথবা চুলকে কুচকুচে কালো রাখতে কী করবেন এসব প্রশ্নের উত্তর জেনে নিন-

চুল কেন পেকে যাচ্ছে?

আমাদের চুলে কালো রং আসে মেলানিন নামের একটি রঞ্জক কণিকা থেকে। আমাদের শরীর যখন এই পদার্থটি উৎপাদন বন্ধ করে দেয় তখন চুলে রংহীন হয়ে যায় অর্থাৎ পেকে যায়। আপনি খুব কাছে থেকে লক্ষ্য করলে দেখবেন, পাকা চুল আসলে একটু হলদেটে। কারণ চুল তৈরি হয় কেরাটিন নামের একটি প্রোটিন দিয়ে, তা হলদেটে। মেলানিন না থাকার কারণে পাকা চুল এ রকম হলদে দেখায়।

চুল পেকে যাওয়া কি বংশগত?

কম বয়সে চুল পেকে যাওয়া বংশগত হতে পারে এবং তা বাবা বা মা যে কারও দিক থেকেই আসতে পারে। আপনার বাবা অথবা মায়ের চুল যদি কম বয়সে পেকে যায় তাহলে আপনারও তা হতে পারে। শ্বেতাঙ্গদের চুল পাকে দ্রুত, ৩০ বছর বয়সের দিকে। অন্যদিকে আফ্রিকান-আমেরিকান এবং এশিয়ান মানুষের চুল পাকে দেরিতে।

স্ট্রেস থেকে কী চুল পাকে?

স্ট্রেস থেকে মানুষের চুল কম বয়সে পাকে, কিন্তু এটাও বংশগতির হাত থাকার জন্যই হয়। আপনার বাবা-মায়ের যদি চুল কম বয়সে পাকে, তাহলে আপনিও স্ট্রেসে থাকলে কম বয়সে পাকতে পারে। অন্যদিকে শরীরে ভিটামিন বি এর অভাব হলেও কম বয়সে চুল পাকতে পারে।

চুল একবার পেকে গেলে কী করতে পারেন আপনি?

১) চুল ডাই করে ফেলুন

পাকা চুলের যত্ন নেওয়ার প্রথম নিয়ম হলো, পাকা চুল উপড়ে ফেলা যাবে না। আপনি যদি বার বার পাকা চুল তুলে ফেলেন, তাহলে চুলের গোড়া ক্ষতিগ্রস্ত হবে এবং চুল পাতলা হয়ে যাবে। এক্ষেত্রে চুল ডাই করে ফেলাই ভালো একটি উপায়। বাসায় বা পার্লারে চুল ডাই করিয়ে ফেলতে পারেন। এর পাশাপাশি চুলে ভালো মানের কন্ডিশনার ব্যবহার করুন।

২) চুলে হাইলাইটার দিন

আপনি যদি চুলে রং করাতে না চান, তাহলে হালকা রং দিয়ে হাইলাইট করে ফেলতে পারেন। এতে পাকা চুলের উপস্থিতি চোখে পড়ে না।

৩) অস্থায়ী কনসিলার ব্যবহার করতে পারেন

প্রতি ছয় থেকে আট সপ্তাহ পর পর চুলে রং করতে পারেন, এর আগে নয়। কিন্তু এ সময়ের মাঝে তো আপনার পাকা চুলের গোড়া দেখা যাবে। তাহলে কী করবেন? এ সময়ে টেম্পোরারি হেয়ার কালার স্প্রে বা পাউডার ব্যবহার করতে পারেন। যদি তা হাতের কাছে না থাকে, তাহলে সিঁথির পাকা চুল ঢাকার জন্য অল্প পরিমাণে গাড় রঙের আইশ্যাডো ব্যবহার করতে পারেন।

চুল পাকা শুরু করলে আরও একটি কাজ করতে পারেন, আর তা হলো সান প্রটেকশন। আপনার মাথার ৫০ শতাংশের বেশি চুল যদি পেকে যায়, তাহলে তা সূর্যের আলোতে সহজেই ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। সুতরাং এ সময়ে ছাতা, টুপি বা স্কার্ফ ব্যবহার করতে পারেন। (সূত্র: কসমোপলিটান)

করেছেন
চুলে রং করলে তো চুল নষ্ট হয়ে যায়
0 টি ভোট
করেছেন (960 পয়েন্ট)
অল্প বয়সে চুল পাকার কারণঃ--

দূষিত আবহাওয়াঃ পরিবেশে মিশে থাকা দুষিত উপাদান শরীরের তৈরি করে ‘ফ্রি র‌্যাডিকাল’ বা মুক্ত মৌল। এই মুক্ত মৌল ‘মেলানিন’ নষ্ট করে, ফলে চুলের বয়স বৃদ্ধির প্রক্রিয়া দ্রুত হয়ে যায় এবং অকালে চুল ধুসর হয়।

মানসিক চাপঃ মানসিক চাপ আমাদের অনেক ধরনের ক্ষতির পেছনে দায়ী, যার মধ্যে অকালে চুল পেকে যাওয়াও রয়েছে। ‘ক্রোমেজোম’য়ে জিনের ঘনত্ব বেড়ে যায় অতিরিক্ত মানসিক চাপের কারণে, ফলে চুলে রং পরিবর্তন হয়। তাই চুলের রং ধরে রাখতে চাইলে মানসিক চাপ নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা করতে হবে।

ধূমপানঃ শুধু সরাসরি নয়, পরোক্ষ ধূমপানের কারণেও চুল ধুসর বর্ণ ধারণ করতে পারে। যারা ধূমপান করেন তাদের অকালে চুল পেকে যাওয়ার আশঙ্কা অধূমপায়ীদের তুলনায় আড়াই গুন বেশি। ধূমপানের বদভ্যাস ত্যাগ করার আরও একটি কারণ।

হরমোন পরিবর্তনঃ অকালে চুল পাকার একটি অন্যতম কারণ শরীরে হরমোনের মাত্রায় পরিবর্তন। পাশাপাশি এই কারণে চুলের ঘনত্ব, রং এবং বাইরের আস্তরেও পরিবর্তন আসতে পারে। এই প্রক্রিয়া সাধারণত ৩০ বছর বয়সের পর শুরু হয় যখন চুলে লক্ষণীয় পরিবর্তন দেখা যায়।

পুষ্টির অভাব: খাদ্যাভ্যাসে যদি সকল প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান পর্যাপ্ত পরিমাণে না থাকে তবে অকালেই চুল পাকা শুরু হতে পারে। বিশেষত ভিটামিন বি টুয়েলভ’য়ের অভাবে চুল রুক্ষ, পাতলা এবং ধুসর বর্ণ ধারণ করে।

রোগঃ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাজনীত কিছু রোগের কারণে চুল পাকা শুরু হতে পারে অল্প বয়সেই। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাজনীত রোগ শরীরের কোষে আক্রমণ চালায়।

পারিবারিক কারণঃ অকালে চুল পাকার আরেকটি বড় কারণ হল বাবা-মায়ের অকালে চুল পেকে যাওয়া। অনেকসময় চুলে রং পরিবর্তন মানুষের জীন প্রভাবিত করে।

1.5k টি প্রশ্ন

1.3k টি উত্তর

3.6k টি মন্তব্য

32.3k জন সদস্য

8 জন অনলাইনে রয়েছে
1 জন সদস্য এবং 7 জন গেস্ট অনলাইনে
  1. Audrita Roy

    12760 পয়েন্ট

  2. বিজ্ঞানের পোকা ৫

    12380 পয়েন্ট

  3. Antor Sawon

    2410 পয়েন্ট

  4. বিজ্ঞানের পোকা ৩

    2340 পয়েন্ট

  5. Sadia Chowdhury

    2090 পয়েন্ট

মাসিক গিফট
১ম স্থান: ১০০ টাকা
২য় স্থান : ৫০ টাকা
৩য় স্থান: ২০ টাকা

Welcome to Sciencebee Q&A, where you can ask questions and receive answers from other members of the community.
...